চট্টগ্রাম রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৮:০৪ পূর্বাহ্ণ

জাহেদুল আলম হ রাউজান

সরকারিভাবে সর্বপ্রথম নির্মিতব্য নোয়াজিষপুরে অত্যাধুনিক মার্কেট

রাউজানে সরকারিভাবে সর্বপ্রথম বৃহত্তম একমাত্র আধুনিক মার্কেট নির্মাণ হচ্ছে উপজেলার ১৫ নম্বর নোয়াজিষপুর ইউনিয়নের নতুন হাটে।
জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার ‘গ্রাম হবে শহর’-এই লক্ষ্যকে কেন্দ্র করে প্রত্যেক উপজেলায় সরকার একটি করে আধুনিক মার্কেট নির্মাণ করছে। মার্কেটটি নির্মাণ করা হচ্ছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তররের অধীনে। তারই ধারাবাহিকতায় রাউজানের একমাত্র সরকারি মার্কেটটি ‘নতুন হাটে’ নির্মিত হচ্ছে। অতি সম্প্রতি (১৮ জানুয়ারি) এ মার্কেট নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সুশংকর চন্দ্র আচার্য্য, স্থানীয় সরকার বিভাগের চট্টগ্রাম জেলার উপ-পরিচালক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম এহেছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, প্রকল্প পরিচালক শাহ আলমগীর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবীর সোহাগ, উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার মামনুন আহমেদ অনিক, নোয়াজিষপুর ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদার, রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (অব.) আলহাজ মো. ফরিদুল আলম চৌধুরী, দিলুয়ারা ইউসুফ, মোসলেম উদ্দীন চৌধুরী, ব্যাংকার মোক্তার হোসেন আলহাজ ফরিদুল আলম, হাছান জাবেদ, আলহাজ নুরুচ্ছফা, সাইমুর রহমান রিপুল, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, বখতেয়ার হোসেন, কাজী জিয়াউর রহমান, কাজী মো. ওমর গণি, আবু শাহাদাত নবী, আকতার হোসেন চৌধুরী, আনোয়ার সিকদার, এমদাদ হোসেন, নাছির উদ্দিন চৌধুরী, হাছান রশীদ চৌধুরী, তাজউদ্দিন খান সোলায়মান, দীল মোহাম্মদ, নাছির উদ্দিন, কুতুব উদ্দিন সিকদার, নাহিদুল করিম চৌধুরী, আমান উল্ল­াহ সাগর, অভি রায়, আবদুল মোতালেব সোহেল, হেলাল উদ্দিন, আনিসুর রহমান রবিন, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম সিকদার, মো. রাশেদ, মিন্টু নাথ, মো. ইসমাঈল, মো. আলম, হাছান বানু, জিন্নাত আরা বেগম, কাজী রেহেনা বেগম প্রমুখ।

ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদারসহ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৪ তলা ভীতবিশিষ্ট দ্বিতল এই মার্কেটের ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি টাকা। মার্কেটটি ১০ হাজার স্কোয়ার ফুট জায়গার ওপর। এতে আধুনিক কেনাকাটার সুযোগ-সুবিধা থাকবে। গ্রামের যে কেউ এখান থেকে যেকোন ধরনের কেনাকেটা করতে পারবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এই মার্কেটটিতে অর্ধশতাধিক দোকান ও আধুনিক সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা থাকবে।
এ প্রসঙ্গে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদার বলেন, প্রধানমন্ত্রী গ্রামকে শহরে পরিণত করার যে অভিপ্রায় ও উদ্যোগ নিয়েছেন সেটিকে আমরা নোয়াজিষপুরে বাস্তবায়ন করতে চাই। এ জন্য উপজেলার একমাত্র মার্কেট আমরা এ ইউনিয়নে করতে পেরে আনন্দিত। ইতিমধ্যে এ ইউনিয়নে দেশসেরা সৌন্দর্যের ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লে­ক্স উদ্বোধন হয়েছে। নতুন হাটে নির্মিতব্য উপজেলা পর্যায়ের একমাত্র আধুনিক মার্কেট নির্মাণ হলে নোয়াজিষপুরবাসী ছাড়াও পাশ্ববর্তী চিকদাইর, গহিরা এবং ফটিকছড়ি উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষও এটির সুফল পাবেন। এ মার্কেট নোয়াজিষপুরে হওয়াতে এমপি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বিজ্ঞাপন

ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, নোয়াজিষপুরে একটি অত্যাধুনিক মার্কেটের প্রয়োজন ছিল। এলাকাবাসী এটি পাওয়ায় খুবই উৎফুল্ল। দুই উপজেলার গ্রামবাসী মার্কেটটির সুফল পাবেন। নোয়াজিষপুরে এ ধরনের মার্কেট নির্মিত হতে যাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী, এলজিআরডি মন্ত্রী, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি ও ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদারকে আমরা এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই। ইউনিয়নের আবদুল করিম নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, মার্কেটটি চালু হলে নোয়াজিষপুর আরো আলোকিত হয়ে উঠবে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 163 People

সম্পর্কিত পোস্ট