চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

শীতে চুলকে রুক্ষতা ও খুশকি থেকে দূরে রাখতে

২৯ জানুয়ারি, ২০২০ | ৫:৪৭ পূর্বাহ্ণ

শীতে চুলকে রুক্ষতা ও খুশকি থেকে দূরে রাখতে

শীতে এমনিতেই ঠা-া লাগার ভয়ে শ্যা¤পু করার মাত্রা কমে যায়। ফলে মাথার ত্বকে জমে থাকে বাড়তি তেল। খুশকি তাই শীতের অন্যতম সমস্যা। এ দিকে শীতে পার্টি বা নিমন্ত্রণ বেড়ে যাওয়ায় চুলে ঘন ঘন ব্যবহার হয় ড্রায়ার, কার্ল ইত্যাদি যন্ত্রের ব্যবহার প্রায়ই করতে হয়। সব মিলিয়ে চুল রুক্ষ ও নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে সহজে। তবে কিছু নিয়ম মেনে চললে শীতে কম শ্যা¤পু করলেও চুল মোলায়েম ও স্বাস্থ্যকর রাখা সম্ভব।
শ্যা¤পুর আগে তেল : সারা বছর কম তেল মাখলেও শীতে তেল মাখায় যেন কোনও অনীহা না থাকে। শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে এমনিই এই সময় চুলের একটু বাড়তি যতœ নেওয়া লাগে। তেলই হতে পারে সেই উপকরণ। সপ্তাহে তিন দিন নারকেল তেল ও ক্যাস্টর অয়েল গরম করে মেখে শোওয়ার নিয়ম তো মানতে হবে বটেই, এ ছাড়াও শ্যাম্পু করার আগে হালকা কুসুম গরম নারকেল তেল মালিশ করুন চুলে। এ বার একটি তোয়ালে গরম পানিতে জড়িয়ে চুলে জড়িয়ে রাখুন আলতো করে। এক ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে নিন।
শ্যাম্পুতে পানি : শ্যাম্পু করার আগে তাতে জল মিশিয়ে তা পাতলা করে নিন। হাতের তালুতে সেই শ্যাম্পু ঘষে ফেনা তৈরি করে নিন। তার পর তা মাখুন চুলে। ঠা-া পানিতে চুল ধুয়ে কন্ডিশনার লাগিয়ে ধুয়ে নিন।
সেরাম : চুলে ব্যবহার করুন হেয়ার সেরাম। প্রতি বার শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার লাগানোর পর চুল শুকনো করে হেয়ার সেরাম লাগিয়ে রাখুন। এতে চুলের ঔজ্জ্বল্য যেমন বাড়বে, তেমনই নরম থাকবে চুল।
স্টাইলিংয়ের যন্ত্র : চুল শুকোনোর ড্রায়ার, কার্লিং টুল, স্ট্রেটনার এগুলো যত এড়িয়ে চলবেন চুলের স্বাস্থ্য ততই ভাল থাকবে। প্রাকৃতিক ভাবেই চুল শুকান। পার্টি বা নিমন্ত্রণ থাকলেও ঘন ঘন কার্লিং বা অন্য স্টাইল না করে কখনও কখনও সাধারণ উপায়েও চুল বাঁধুন।
সিল্কের ব্যবহার : শীতের দিনে চুলে সিল্কের স্কার্ফ জড়িয়ে রাখতে পারেন। সিল্ক যেহেতু মোলায়েম ফ্যাব্রিক, তাই এর ঘর্ষণে চুল ভাঙার ভয় থাকে না। সিল্কের স্কার্ফ চুলে জড়িয়ে রাখলে বাইরের ধুলোবালিও লাগবে না। তাই কমে রুক্ষতা।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 146 People

সম্পর্কিত পোস্ট