চট্টগ্রাম সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

২০৩৫ সালে শীর্ষ ১০ শহরে থাকবে ঢাকা

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

২০৩৫ সালে শীর্ষ ১০ শহরে থাকবে ঢাকা

২০৩৫ সাল নাগাদ বিশ্বের অনেক শহরের চেহারা বদলে যাবে। ওই সময়ে অর্থনীতির আকার, জনসংখ্যা ও জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধির হারের পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে অক্সফোর্ড ইকোনমিকস শীর্ষ ১০টি শহরের তালিকা করেছে।

তিনটি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে পৃথক ১০টি করে শহরের তালিকা তুলে ধরেছে উইফোরাম ডটওআরজি।

অক্সফোর্ড ইকোনমিকসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০৩৫ সাল নাগাদ মোট জিডিপি বিস্তৃত হওয়া শহরগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস ও শিকাগো রয়েছে। তালিকায় চীনের শহর সাংহাই, বেইজিং, গুয়াংজু ও শেনঝেন থাকবে। শক্তিশালী ব্যাংকিং ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রের জন্য ২০৩৫ সালে নিউইয়র্ক শহরের জিডিপি দাঁড়াবে ২ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের জিডিপি নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকবে টোকিও। বর্তমানে ১ দশমিক ৬ ট্রিলিয়ন ডলার জিডিপি নিয়ে বিশ্বের শীর্ষ শহর টোকিও। তালিকায় চারে লন্ডন, সাতে প্যারিস আর আটে শিকাগো থাকবে।

এদিকে জনসংখ্যার ভিত্তিতে শহরের হিসাবে ২০৩৫ সাল নাগাদ বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল শহরগুলোর মধ্যে ৭টি হবে এশিয়ার। এ তালিকায় ঢাকার অবস্থান হবে চতুর্থ। ৩ কোটি ৮০ লাখ জনসংখ্যা নিয়ে তালিকায় শীর্ষে থাকবে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা। এরপরই থাকবে টোকিও। তৃতীয় অবস্থানে চলে আসবে চীনের চংকিন শহর। ঢাকার পরের অবস্থানে চলে আসবে করাচি, কিংসা, লাগোস, মেক্সিকো সিটি ও মুম্বাই। ২০৩৫ সাল নাগাদ ঢাকার জনসংখ্যা ৩ কোটি ১২ লাখ হতে পারে বলেও উইফোরামের প্রতিবেদন বলছে।

এছাড়া বার্ষিক জিডিপি প্রবৃদ্ধির হিসাবের ক্ষেত্রে ২০৩৫ সাল নাগাদ শীর্ষ শহরের মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে আসবে ঢাকা। ওই সময় ঢাকার জিডিপি হতে পারে ৭ দশমিক ৬ শতাংশ। ঢাকার চেয়ে কিছুটা বেশি জিডিপি (সাড়ে ৮ শতাংশ) হতে পারে ভারতের বেঙ্গালুরুর। 

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম বলেছে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির গতি হিসাব করলে কতগুলো শহরকে আলাদাভাবে দেখতে হবে। যেখানে সাধারণ শহরগুলোর জিডিপি ২ দশমিক ৬ শতাংশের মতো, সেখানে শীর্ষ ১০ শহরের জিডিপির গতি অনেক বেশি। দ্রুতগতির জিডিপির কারণে সবচেয়ে এগিয়ে থাকা শহরগুলোর সবই এশিয়াকেন্দ্রিক হবে। এর মধ্যে চারটি হবে চীনের। তিনটি হবে ভারতের। 

জনসংখ্যার হিসাবে শীর্ষ ১০ এ থাকা জাকার্তা দ্রুতগতির প্রবৃদ্ধির তালিকায়ও রয়েছে। এছাড়া ৬ দশমিক ৬ ও সাড়ে ৬ শতাংশ জিডিপির গতি নিয়ে ঢাকার পরেই থাকবে ভারতের মুম্বাই ও দিল্লি। ৫ দশমিক ৩ শতাংশ জিডিপি নিয়ে এরপর থাকবে চীনের শেনঝেন।

তিন ধরনের তালিকায়ও জায়গা পেয়েছে চীনের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে পরিচিত সাংহাই শহর। শহরটিতে বিশ্বের ব্যস্ততম বন্দর, চীনের স্টক এক্সচেঞ্জের মতো জায়গা থাকায় ২০৩৫ সালে এর বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশে পৌঁছাবে।

পূর্বকোণ/পিআর 

The Post Viewed By: 117 People

সম্পর্কিত পোস্ট