চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২০

নুসরাতকে যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করেছেন অধ্যক্ষ

৩০ জুন, ২০১৯ | ২:১১ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

নুসরাতকে যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করেছেন অধ্যক্ষ

যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন ফেনীর সোনাগাজীর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা।  তাকে একমাত্র অভিযুক্ত করে এক সপ্তাহের মধ্যে চার্জশিট দেবে পিবিআই।

ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদের আদালতে তাকে হাজির করা হয়। এসময় তিনি যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করেন।

গত ২৯ মে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইনের আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহ আলম ১৬ জনকে অভিযুক্ত করে ৮০৮ পৃষ্ঠাসংবলিত নথি ও চার্জশীট দাখিল করেন।

এরপর গত ৩০ মে মামলার ধার্য তারিখে আসামিদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানি না করে ওই মামলাটি ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে পাঠানোর আদেশ দিয়ে ১০ জুন মামলার শুনানির দিন ধার্য্য করেন। পরে ১০ জুন আদালত চার্জশিট আমলে নিয়ে ২০ মে চার্জ গঠন করেন। ওই দিন ২৭ জুন বাদীসহ তিনজনের সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেন আদালত।

গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাদে কৌশলে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। গত ১০ এপ্রিল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুসরাতের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন।

চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।ৎ

 

পূর্বকোণ/পলাশ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 250 People

সম্পর্কিত পোস্ট