চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১

দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর প্রায় ৬ কিলোমিটার

২৭ নভেম্বর, ২০২০ | ৫:৪৩ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর প্রায় ৬ কিলোমিটার

পদ্মা সেতুর ৩৯তম স্প্যান বসেছে আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টায়। মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্তে স্প্যানটি বসানো হয়েছে। সেতুর ১০ ও ১১ নম্বর পিলারের উপর ৩৯তম স্প্যান ‘২-ডি’ বসানো হয়। এর মাধ্যমে সেতুর ৫ হাজার ৮৫০ মিটার অর্থাৎ ৬ কিলোমিটার ছুঁইছুঁই দৃশ্যমান হয়েছে। পদ্মা সেতুর সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে লৌহজংয়ের কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে স্প্যান নিয়ে ভাসমান ক্রেন তিয়ান-ই নির্ধারিত পিলারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এরপর সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা ক্রেনটি নির্ধারিত পিলারের কাছে পৌঁছালে স্প্যানটি বসানোর কার্যক্রম শুরু করে। পরে ৩৯তম স্প্যান বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বসানোর কাজ সম্পন্ন হয়।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, মাওয়া প্রান্তে ৩৯তম স্প্যান বসানোর কারণে আর বাকি থাকলো দু’টি স্প্যান। ইতিমধ্যেই জাজিরা প্রান্তে সবগুলো স্প্যান বসানো হয়েছে।

আগামী ২ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নম্বর পিলারে ৪০তম স্প্যান ‘২-ই’ ও ১০ ডিসেম্বর ১২ ও ১৩ নম্বর পিলারে ৪১তম স্প্যান স্প্যান ‘২-এফ’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া সেতুর ২ হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্লাবের মধ্যে ১ হাজার ৪১ টির বেশি রোড স্ল্যাব বসানো হয়েছে। আর ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্ল্যাবের মধ্যে এখন পর্যন্ত বসানো হয়েছে ১ হাজার ৫০০টির বেশি।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে বসানো হয় ৩৪টি স্প্যান। ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে। বহুমুখী ও ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। সেতুল কাঠামো কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী বছর অর্থাৎ আগামী ২০২১ সালেই পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পর খুলে দেয়া হবে।

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 194 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট