চট্টগ্রাম সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

প্রেমিক পুলিশকে বিয়েতে বসাতে কিশোরীর অনশন

১৬ নভেম্বর, ২০২০ | ১১:০৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রেমিক পুলিশকে বিয়েতে বসাতে কিশোরীর অনশন

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বিয়ের দাবিতে আনন্দ নামে এক পুলিশ কনস্টেবলের বাড়িতে দু’দিন ধরে অনশন করছে এক কিশোরী (১৫)। আনন্দ নামে ওই কনস্টেবল বর্তমানে লালমনিরহাটে কর্মরত আছেন।

ওই কিশোরীর অভিযোগ, চার বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে আনন্দের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে উঠে। পারিবারিকভাবে ৩ লাখ টাকা যৌতুকে বিয়ের আলোচনাও হলেও মাঝে দুজনের মধ্যে কথা বন্ধ হয়ে যায়। খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, আনন্দ অন্যত্র ১২ লাখ টাকা যৌতুকের বিনিময়ে বিয়ের আলাপ চূড়ান্ত করেছে। তাই আমি গত রবিবার (১৫ নভেম্বর) থেকে বিয়ের দাবিতে আনন্দের বাসায় এসেছি। আনন্দ এর আগে আমাকে বিয়ের কথা বলে তিস্তায় তার ফুফাত বোনের বাসায় নিয়ে গিয়ে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে শারীরিক সম্পর্ক করে। আমি বিয়ের কথা বললে টালবাহানা করে আমাকে বিয়ে না করে বাড়িতে ফেরত পাঠায়। আবার গত ২২ আগস্টও বিয়ের কথা বলে ফুসলিয়ে তিস্তার মোস্তফিতে আনন্দের তালত বোনের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে পুনরায় শারীরিক সম্পর্ক করে। শারীরিক সম্পর্ক করার পর আমি আবারও বিয়ের কথা বললে নানা টালবাহানা করে। এরপর থেকে আনন্দ আমার সাথে দুর্ব্যবহার শুরু করে। আনন্দ আমার সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে বেঁচে থাকার অবলম্বনটুকুও শেষ করে দিয়েছে। আমাকে বিয়ে না করলে আমি আমার জীবন শেষ করে দেব বলে আনন্দের পরিবারের সদস্যদের হুমকি দেয় ওই কিশোরী।

এ বিষয়ে ছিনাই ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান হক বুলু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, আমি শুনেছি মেয়েটি আনন্দের বাড়িতে আছে।

রাজারহাট থানার ওসি রাজু সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মেয়েটি কম বয়সী ও দশম শ্রেণির ছাত্রী। এছাড়া ওই ছেলের সঙ্গে অন্য একটি মেয়ের বিয়ের আশীর্বাদ হয়ে আছে। মেয়েটিকে তার অভিভাবকের কাছে পৌঁছানোর জন্য আলোচনা চালানো হচ্ছে।

 

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 78 People

সম্পর্কিত পোস্ট