চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

ঢাকায় বাসে আগুন আসামি চট্টগ্রামের তিন যুবদল নেতা

১৪ নভেম্বর, ২০২০ | ৩:৫৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকায় বাসে আগুন: ১৪ মামলায় গ্রেপ্তার ৩২

ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে সহিংসতা ও ১০ বাসে আগুন লাগার ঘটনায় নয় থানায় দায়ের করা ১৪টি মামলায় এ পর্যন্ত ৩২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ২৮ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ শনিবার (১৪ নভেম্বর) দুপুর পর্যন্ত থানা ও মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. ওয়ালিদ হোসেন।

তিনি জানান, গত বৃহস্পতিবার বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নয় থানায় দায়ের করা ১৪টি মামলায় দুই শতাধিক আসামির মধ্যে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়েছে ৩২ জন। ঘটনাস্থলের সংগৃহীত ফুটেজ বিশ্লেষণ করে জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়। এর মধ্যে ২৮ জন রিমান্ডে রযেছে। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার মতিঝিল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার একজন দু’দিনের রিমান্ডে রয়েছে।

একই আইনে মতিঝিল থানায় অপর মামলায় গ্রেপ্তার আরেকজন দু’দিনের রিমান্ডে রয়েছে।

শাহবাগ থানার ২১ মামলায় গ্রেপ্তার তিনজন। পল্টন থানার বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা মামলায় এজাহার নামীয় মোট ৩৮ আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার সাতজন।

পল্টন থানার মামলায় গ্রেপ্তার একজন, পল্টন থানার এজাহার নামীয় মামলায় ৩৮ আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার দু’জন।

বংশাল থানার মামলায় গ্রেপ্তার দু’জন, ভাটারা থানার বিস্ফোরক আইন ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় এজাহার নামীয় আসামি ৯৫ জন। তবে কোনো ব্যক্তিকে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয় নি।

কলাবাগান থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় এজাহার নামীয় ৪৯ আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার দু’জন, তুরাগ থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় এজাহার নামীয় ৩৩ আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার একজন।

বিমানবন্দর থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় এজাহার নামীয় ২৮ আসামি, গ্রেপ্তার নেই। উত্তরা পূর্ব থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় এজাহার নামীয় ২৮ আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার নয়জন। একই থানায় পৃথক মামলায় এজাহার নামীয় আসামি ১৯ জন। তবে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয় নি।

ঢাকা-১৮ আসনে সংসদীয় উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিরোধী কোনো পক্ষ নাশকতার উদ্দেশে একযোগে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বাসে আগুন দিয়েছে বলে আশঙ্কা করছেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। নির্বাচনী এলাকার দু’টি স্থানে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ও ভোটগ্রহণের সময় রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গণপরিবহনে আগুন দেয়ার ঘটনা এক কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 62 People

সম্পর্কিত পোস্ট