চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

হাই কোর্ট

৮ নভেম্বর, ২০২০ | ৯:৫৮ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

গুগল-ফেইসবুক থেকে বকেয়া শুল্ক আদায়েরও নির্দেশ আদালতের

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুগল, ইয়াহু, ফেইসবুক, ইউটিউব, অ্যামাজন ইত্যাদি ইন্টারনেটভিত্তিক প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন, ডোমেইন বিক্রি, লাইসেন্স ফিসহ সব ধরনের লেনদেন থেকে উৎসে কর, শুল্ক বা রাজস্ব আদায়ের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসিসহ সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরগুলোকে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে, এতে তাদের বকেয়া শুল্ক আদায়ের নির্দেশও দেয়া হয়।

জনস্বার্থে করা রিট আবেদনে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে রোববার এ রায় দিয়েছে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

রায়ে এ বিষয়ে পাঁচটি নির্দেশনা দিয়েছে হাই কোর্ট।

১) অবিলম্বে গুগল, ইয়াহু, ফেইসবুক, ইউটিউব, অ্যামাজনসহ ইন্টারনেটভিত্তিক সব ধরনের প্লাটফর্ম বা মাধ্যমের আর্থিক লেনদেন থেকে প্রচলিত আইন অনুযায়ী উৎসে কর, শুল্ক রাজস্ব আদায় করতে হবে ।
২) এখন পর্যন্ত গুগল, ইয়াহু, ফেইসবুক, ইউটিউব, অ্যামাজনসহ ইন্টারনেটভিত্তিক সব ধরনের প্লাটফর্ম বা মাধ্যম বাংলাদেশ থেকে যে অর্থ নিয়েছে, বকেয়া হিসেবে আনুপাতিক হারে তার রাজস্ব আদায় করতে হবে।
৩) এই রাজস্ব আদায়ের বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে প্রতি ছয় মাস পর পর হলফনামা করে অগ্রগতি প্রতিবেদন দিতে হবে।
৪) ঘোষিত রায়টি চলমান হিসেবে (কন্টিনিউয়াস মেন্ডামাস) থাকবে।
৫) এই রায়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে কোনো ধরনের ব্যত্যয় ঘটলে দেশের যে কোনো নাগরিক যে কোনো সময় আদালতে আবেদন করে প্রতিকার চাইতে পারবে ।

টেক জায়ান্টগুলো থেকে শুলক আদায়ে বিভিন্ন দেশ উদ্যোগী হলও বাংলাদেশ এক্ষেত্রে পিছিয়ে; ফলে সরকার প্রচুর রাজস্ব হারাচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে যাওয়া বিজ্ঞাপনের অর্থ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অবৈধ পথে যাচ্ছে বলে তা তদারকির মধ্যে আনতে সরকারের প্রতি আহ্বানও জানানো হচ্ছিল।

এর মধ্যেই ২০১৮ সালের ৯ এপ্রিল বিষয়টি নিয়ে আদালতের নির্দেশনা চেয়ে মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লবসহ সুপ্রিম কোর্টের ছয় আইনজীবী হাই কোর্টে রিট আবেদনটি করেন।

এডভোকেট পল্লব সাংবাদিকদের বলেন, “আড়াই বছর আগে জনস্বার্থে করা এ রিটটিতে প্রাথমিক আদেশের পর এখনও সন্তোষজনক রাজস্ব আদায় করতে ব্যর্থ হয়েছে। যে কারণে রায় ঘোষণার সময় আদালত সরকারি সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকান্ডে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন । তবে এখন যে রায়টি হল, সেটি বাস্তবায়ন করা গেলে বাংলাদেশের রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রে বিশাল একটি সম্ভাবনা তৈরি হবে বলে জানিয়েছেন রিটকারীরা ।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 60 People

সম্পর্কিত পোস্ট