চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলা: নূরের সহযোগী সোহাগ গ্রেপ্তার

৫ নভেম্বর, ২০২০ | ৮:০৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলা: নূরের সহযোগী সোহাগ গ্রেপ্তার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর করা ধর্ষণ মামলার আসামিদের মধ্যে নাজমুল হাসান সোহাগকে (২৮) গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। পুরান ঢাকার রায়সাহেব বাজার এলাকা থেকে বুধবার (৪ নভেম্বর) বিকেলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ থেকে স্নাতকোত্তীর্ণ ছাত্র ও বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃত সোহাগকে গ্রেপ্তারের পর আজ বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে সোহাগতে আদালতে পাঠানো হয়। পরে ঢাকা মহানগর হাকিম কনক কুমার বড়ুয়া তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

মামলার অভিযোগসূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের একই বিভাগের শিক্ষার্থী এবং ছাত্র অধিকার পরিষদের কর্মী হওয়ায় এই পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনের সঙ্গে তার ‘প্রেমের সম্পর্ক’ হয়। সেই সম্পর্কের জের ধরে গত ৩ জানুয়ারি লালবাগের বাসায় নিয়ে তাকে ‘ধর্ষণ করেন’ মামুন। তখন সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল হাসান সোহাগ তার পাশে দাঁড়ান। চিকিৎসায় সহায়তা করার পর মামুনকে খুঁজে পেতে সাহায্যের কথা বলে চাঁদপুরে নিয়ে ফেরার পথে নাজমুল সোহাগও লঞ্চের মধ্যে তাকে ‘ধর্ষণ করেন’। পরে ঘটনার প্রতিকার চেয়ে তিনি নূরসহ তাদের অপর সহকর্মীদের কাছে গেলে প্রথমে সহযোগিতার আশ্বাস দিলেও পরে ‘বাড়াবাড়ি করলে চরিত্রহননের’ ভয় দেখান। পরে তিনি ধর্ষণ ও সামাজিক যোগাযোগে মাধ্যমে চরিত্র হননের অভিযোগ এনে রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরেকটি মামলা করেন তিনি। এই মামলায় হাসান আল মামুনকে ‘ধর্ষণের’ প্রধান আসামি ও ডাকসু সাবেক ভিপি নূরসহ আরও পাঁচজনের ‘ধষর্ণের সহযোগী’ নাম উল্লেখ করা হয়।

পরে গত ৮ অক্টোবর মামলা দায়েরের ১৭ দিন পরেও আসামিদের কেউ গ্রেপ্তার না হওয়ায় ওই ছাত্রী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশন শুরু করেন। এরপর গত ১১ অক্টোবর মামলার দুই আসামি সাইফুল ইসলাম ও মো. নাজমুল হুদাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। দুই দিনের রিমান্ড শেষে তারা এখন কারাগারে আছেন।

এদিকে টানা অনশন-অবস্থানে অসুস্থ হয়ে ওই ছাত্রী গত ১৯ অক্টোবর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। কিছুটা সুস্থ হওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকালে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। এ সময় ঢাবি’ও ওই ছাত্রী বলেন, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে নূরসহ বাকি তিন আসামিকে গ্রেপ্তার না হলে ফের নতুন কর্মসূচিতে যাবেন তিনি।

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 79 People

সম্পর্কিত পোস্ট