চট্টগ্রাম রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৮ এপ্রিল, ২০১৯ | ২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

অধিদপ্তরের কাজ নিয়ে অসন্তোষ পাহাড়কাটা সম্পূর্ণ বন্ধ, নদীকে নদীর মত রাখতে পরিবেশ মন্ত্রীর নির্দেশ

পাহাড়কাটা সম্পূর্ণ বন্ধ ও নদীকে নদীর মত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বন ও পরিবেশ মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। গতকাল শনিবার পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় নবনির্মিত গবেষণাগার পরিদর্শন শেষে কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী এই নির্দেশ দেন। মন্ত্রী গবেষণাগারের কাজের মান নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে কাজের মান বাড়াতে কর্মকর্তাদের আরও মনোযোগী হওয়ার তাগিদ দেন। ইটভাটার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, পরিবেশ রক্ষা করে কাজ করতে হবে। মানুষ বাঁচার মত পরিবেশ রাখতে হবে। মানুষ না বাঁচলে ইট কি কাজে লাগবে? ইট ভাটা মালিকদের বিরুদ্ধে নামে মাত্র মামলা দিলে হবে না, কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে হবে। চট্টগ্রাম পাহাড় নদী ও সমতল বেষ্টিত এলাকা। চট্টগ্রামের কিছু প্রভাবশালীর কারণে পাহাড় কাটা বন্ধ করা দুঃসাধ্য ব্যাপার। প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরকে পাহাড় কাটা সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ করার নির্দেশ দেন মন্ত্রী। তিনি বলেছেন, নদীমাতৃক বাংলাদেশের নদী রক্ষা করতে হবে। নদীর নাব্যতা ঠিক রেখে সব ধরনের উন্নয়ন কর্মকা- করতে হবে। অবৈধ দখল, নদীতে কলকারখানার বর্জ্য ফেলা যাবে না। নদীকে নদীর মত রাখতে হবে। মন্ত্রী বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় গবেষণাগার, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অধীন একটি শাখা। গবেষণাগারের আওতায় চট্টগ্রাম বিভাগের সকর জেলার বিদ্যমান পরিবেশ দূষণকারী শিল্পকারখানার বায়ু, শব্দ এবং তরল বর্জ্যরে মান পরিবীক্ষণ করা হয়। গবেষণাগারের নিয়মিত কার্যক্রম হিসেবে চট্টগ্রাম শহরের বায়ু, শব্দ ও চট্টগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ নদী কর্ণফুলী ও হালদার পানি নির্দিষ্ট পয়েন্ট হতে সংগ্রহপূর্বক প্রত্যেক মাসে পরীক্ষা করা হয়ে থাকে। এ সকল বিষয়ে দাপ্তরিক কাজের খোঁজ খবর নিয়ে মন্ত্রী বলেন, কাজের মান সন্তোষজন নয়। দাপ্তরিক কাজে আরো মনোযোগী হওয়ার হতে হবে। তিনি আরো বলেন, গবেষণাগারে কাজ করছেন, কিন্তু যথাযথভাবে করছেন না। যা করছেন তা ঠিক না। মতবিনিময় সভায় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন্নাহার, সচিব । ১১ পৃষ্ঠার ৮ম ক.

আব্দুল্লাহ আল মোহসিন চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব মো. মনসুর আলমসহ পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 312 People

সম্পর্কিত পোস্ট