চট্টগ্রাম বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

৭ অক্টোবর, ২০২০ | ১২:১৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ

চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষা কবে অনুষ্ঠিত হবে সে বিষয়ে আজ বুধবার সিদ্ধান্ত জানানো হতে পারে।

করোনাভাইরাসের কারণে এ বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা গত ১ এপ্রিল শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে গেছে। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটি থেকে জানা গেছে, আগামী নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই পরীক্ষা নেওয়া যায় কিনা তা নিয়ে নীতিনির্ধারকদের মধ্যে আলোচনা চলছে। তবে মঙ্গলবার পর্যন্ত কোনো দিনক্ষণ চূড়ান্ত হয়নি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিব জানিয়েছেন, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটিকে খুঁটিনাটি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সেটার আলোকে বোর্ডগুলো প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করছে। ওই নির্দেশনার মধ্যে আছে- কত নম্বরের মধ্যে পরীক্ষা হবে, কোন বিষয়ের পরীক্ষা কীভাবে হবে, রুটিন কীভাবে করা হল এবং কেন, পরীক্ষার আসন ব্যবস্থা কী হবে, মুদ্রিত প্রশ্নপত্রের পরিবর্তে পূর্ণমানে কীভাবে পরীক্ষা হবে ইত্যাদি।

মন্ত্রণালয় এবং আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি সূত্রে জানা গেছে, মধ্য নভেম্বরের মধ্যে পরীক্ষা শুরুর চিন্তা নিয়ে পরিকল্পনা তৈরি করা হচ্ছে। ইতোপূর্বে রুটিনে ৬ সপ্তাহ সময় নেয়া হয়েছিল। এখন এর চেয়েও কমানোর চিন্তা আছে। কেননা, শিক্ষার্থীরা যত কম বের হবে তত সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা কম থাকবে বলে মনে করেন নীতিনির্ধারকরা।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর সাংবাদিকদের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, ৫ বা ৬ অক্টোবরের মধ্যে এ বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার পরিপূর্ণ পরিকল্পনাসহ সুনির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা করা হবে। তবে মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার পর্যন্ত তাদের কাজ শেষ করতে পারেনি।

ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, এ পরীক্ষার প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে শিক্ষার্থীদের চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হবে। তবে অপশনও থাকবে। যারা যৌক্তিক কোনো কারণে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না, বিকল্প উপায়ে তাদের মূল্যায়ন কীভাবে করা যায়- সেটা নিয়েও পরিকল্পনা থাকবে। দ্রুত সময়ে মিনিমাম কতগুলো বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া যায়, সেটা ভাবা হচ্ছে। আর যাতে কোনো পরীক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটিও বিবেচনায় রাখা হয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 78 People

সম্পর্কিত পোস্ট