চট্টগ্রাম সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৫:১৮ অপরাহ্ণ

মোহাম্মদ আলী

আরো ৬ হাজার বাংলাদেশি নারী কর্মী নিচ্ছে হংকং

বাংলাদেশ থেকে আরো ছয় হাজার মহিলা ডোমেস্টিক হেলপার নিবে হংকং। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনে রাষ্টীয় মালিকানাধীন বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট এন্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) বিদেশে এসব জনশক্তি প্রেরণ করবে। এ ব্যাপারে আগ্রহী মহিলা কর্মীদের আবেদন করতে বলা হয়েছে।
চট্টগ্রাম জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশ হতে মহিলা ডোমেস্টিক হেলপার নিয়ে যাচ্ছে হংকং। গত ৬ বছরে দেশটি এক হাজার ৩৫ জন মহিলা কর্মী নিয়ে গেছে। এরমধ্যে ২০১৫ সালে ৩০০ জন, ২০১৬ সালে ১৭৩ জন, ২০১৭ সালে ১৭৮ জন, ২০১৮ সালে ১৫১ জন, ২০১৯ সালে ১৮৭ জন এবং চলতি বছরের এ সময় পর্যন্ত ৪৬ জন।
এবার নতুন করে আরো ছয় হাজার গৃহ কর্মীর চাহিদার কথা জানিয়েছে দেশটি। সম্পূর্ণ সরকারিভাবে এসব কর্মী নিয়ে যাওয়া হবে। কমপক্ষে অষ্টম শ্রেণি কিংবা তার সমমান পাস আগ্রহী মহিলারা স্ব-স্ব জেলার কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস অথবা টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের (টিটিসি) মাধ্যমে ঢাকার রমনাস্থ ৭১-৭২ ইস্কাটন গার্ডেন, প্রবাসী কল্যাণ ভবনের বোয়েসেল এর পরিচালক বরাবর জীবন বৃত্তান্ত প্রেরণ করতে পারবেন।
সূত্র আরো জানায়, আবেদনকারী মহিলার বয়স হতে হবে ২০ থেকে ৩৫ বছর। হংকং-এ তাদের মাসিক বেতন হবে ৫১ হাজার টাকা। তাদের বাসস্থান, খাবার ও চিকিৎসার খরচ নিয়োগকারী বহন করবে। প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত কর্মীদের বোয়েসেল’র ব্যবস্থাপনায় ৩ থেকে ৪ মাসের হাউজ কিপিং এর ওপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এছাড়া তাদের হংকং এর ক্যান্টনিজ ভাষার উপর প্রশিক্ষণও দেয়া হবে। প্রশিক্ষণসহ প্রতিজন চূড়ান্ত বাছাইকারীকে বিমান ভাড়া এবং বোয়েসেলের সার্ভিস চার্জসহ এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা করে খরচ বহন করতে হবে।
সূত্র আরো জানায়, সাধারণত হংকং-এ গৃহকর্মী হিসেবে তিন পার্বত্য জেলার উপজাতি মহিলাদের চাহিদা বেশি। এজন্য সেখান থেকে তুলনামূলক আবেদন বেশি পড়ছে।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস, চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, ‘স্বল্প ব্যয়ে ও নিরাপদে বিদেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট এন্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) বিদেশ গমনেচ্ছুক কর্মীদের নিরলস সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এ প্রতিষ্ঠান হংকং-এ আরো ৬ হাজার মহিলা ডোমেস্টিক হেলপার নিয়োগে চাহিদাপত্র পেয়েছে। এ লক্ষ্যে গত ৬ আগস্ট থেকে আমরা কাজ করে যাচ্ছি’।
মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার বলেন, ‘হংকং-এ মহিলা ডোমেস্টিক হেলপারের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বিশেষ করে তিন পার্বত্য জেলা রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ির উপজাতি মহিলারা সেখানে গিয়ে ভাল করছে। নিরাপত্তা, বেতনের নিশ্চয়তাসহ সকল কিছুর সুবিধা রয়েছে সেখানে’।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 95 People

সম্পর্কিত পোস্ট