চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ২৩

৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১১:১২ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ২৩

নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম তল্লায় মসজিদের এসি বিস্ফোরণে দগ্ধদের মধ্যে আরও মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

দগ্ধদের মধ্যে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে যে ১৪ জন ভর্তি আছেন, তাদের অবস্থাও সঙ্কটাপন্ন বলে ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের বাইতুস সালাত জামে মসজিদ থেকে দগ্ধ অবস্থায় যে ৩৭ জনকে বার্ন ইনস্টিটিউটে আনা হয়েছিলে, তাদের মধ্যে ২১ জনের মৃত্যু হয় শনিবার রাত ১১টা পর্যন্ত।

এরপর রবিবার ভোরের মধ্যে মারা যান জুলহাস উদ্দিন (৩০) ও শামীম হোসেন (৪৮) নামে দুজন। তাদের নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৩ জন হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, রাতে যে দুজনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে শামীম হোসেন ছিলেন ওই মসজিদ কমিটির কোষাধ্যক্ষ। বাইতুস সালাত জামে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনও এর আগে মারা গেছেন।

ওসি আসলাম হোসেন জানান, যে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে ২০ জনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাদের দাফনও করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে এশার নামাজের সময় ছয়টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রে একসঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ঘটনায় শনিবার পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। এতে মসজিদ কমিটি, বিদ্যুৎ এবং তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে বিবাদী করা হয়েছে। এদিকে, মসজিদে এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা মেনে নিতে পারছেন না কেউ। ধর্মপ্রাণ মানুষ নামাজ পড়তে গিয়ে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে পাড়ি জমালেন পরপারে। 

অভিযোগ উঠেছে, তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে মসজিদের নিচের গ্যাসের পাইপলাইনে সমস্যার কথা জানানোর পরও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এ পরিস্থিতিতে বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্তে চারটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, ডিপিডিসি ও তিতাস গ্যাসের পক্ষ থেকে ঘটনার নেপথ্যের কারণ অনুসন্ধানে এসব কমিটি গঠন করা হয়।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 110 People

সম্পর্কিত পোস্ট