চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ট্রেনে চড়ে ঢাকায় এলো গরু  

২৯ জুলাই, ২০২০ | ৪:৫৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

ট্রেনে চড়ে ঢাকায় এলো গরু  

১৩ বছর পর রেলে আবার পশু পরিবহন শুরু হয়েছে। প্রথম যাত্রায় জামালপুরের ইসলামপুর থেকে আগের রাতে ২৬১টি গরু নিয়ে রওনা করা ‘ক্যাটাল স্পেশাল’ বুধবার (২৯ জুলাই) সকালে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছেছে। গরু প্রতি ভাড়া পড়েছে ৫০০ টাকা। যা সড়কের তুলনায় অনেক কম।

এর আগে, রেলওয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোরবানির পশু পরিবহনের লক্ষ্যে খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে এক জোড়া এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে এক জোড়া করে মোট দুই জোড়া ‘ক্যাটল স্পেশাল’ ট্রেন চলবে।

করোনার কারণে ৬৮ দিন বন্ধ থাকার পর গত ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে চলছে রেল। ঈদযাত্রায় সারাদেশে মাত্র ১৭টি আন্তঃনগর ট্রেন চলছে। করোনাকালে কৃষকের সুবিধায় এর আগে কৃষিপণ্য ও আমবাহী পার্সেল ট্রেন চালু করেছিল রেলওয়ে। ঈদে খামারিদের সুবিধায় গত ৭ জুলাই কোরবানির পশুবাহী ওয়াগন পরিচালনার ঘোষণা দেয় রেল। 

দু’টি ওয়াগন রেক প্রস্তুত রাখা হলেও পশু পরিবহনের চাহিদা না থাকায় তা চালু করা যাচ্ছিল না। পশ্চিমাঞ্চলের ওয়াগন না চললেও, গত মঙ্গলবার রাতে ইসলামপুর থেকে ২৩০ এবং মেলান্দহ থেকে ৩১টি গরু নিয়ে যাত্রা করে ‘ক্যাটাল স্পেশাল’। মিটারগেজ ১৭ ওয়াগনের প্রতিটির ধারণ ক্ষমতা ১৬টি গরু। খামারিদের সুবিধার্থে ওয়াগনের শেষে যুক্ত করা হয় একটি যাত্রীবাহী বগি। জয়দেবপুর, তেজগাঁওয়ে কিছু গরু নামিয়ে বাকিগুলো নিয়ে কমলাপুরের আট নম্বর প্ল্যাটফর্মে আসে ওয়াগনটি। কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার আমিনুল হক এসব তথ্য জানিয়েছেন। 

ব্যাপারিরা জানিয়েছেন সড়ক পথের তুলনায় কম খরচ রেলে। জামালপুর থেকে ট্রাকে গরু প্রতি দেড় হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হয়। রেলে লেগেছে ৫০০ টাকা। ট্রাকে তাদের বসার ও বিশ্রামের জায়গা থাকে না। হাটের যানজটে পড়তে হয়। বৃষ্টি হলে গরু ভিজে। পথে ট্রাক দুর্ঘটনার ভয় থাকে। রেলে এসব ঝামেলা পোহাতে হয়নি। 

এর আগে, ২০০৮ সালে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ ঘাট থেকে সাতটি কোরবানির পশুবাহী ট্রেন পরিচালনা করেছিল রেলওয়ে।

 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 126 People

সম্পর্কিত পোস্ট