চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০

২২ জুলাই, ২০২০ | ৯:০৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় তারকা হোটেলের ক্ষতি আড়াই হাজার কোটি টাকা : বিহা

করোনায় দেশের তারকা হোটলেগুলোর প্রায় ২ হাজার ৫০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন হোটেল মালিকরা। পরিস্থিতির পরিবর্তন না হলে চলতি বছরেই এটা ৭ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে এই খাতকে বাঁচাতে ছয় দফা সুপারিশ উত্থাপন করেছে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল হোটেল অ্যাসোসিয়েশন (বিহা)।

বুধবার (২২ জুলাই) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিহা’র নেতারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনার পাশাপাশি বিভিন্ন সুপারিশ তুলে ধরেন।

বিহা’র প্রস্তাবগুলো হচ্ছে— বর্তমানে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন আবাসিক হোটেল ও অন্যান্য হোটেল এবং রিসোর্টের বিপরীতে বিদ্যমান ঋণের  লভ্যাংশ/সুদ মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত মওকুফ করা। কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবে  ক্ষতিগ্রস্ত হোটেল এবং রিসোর্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ৩০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের ওপর অর্পিত মোট ৯% লভ্যাংশ/সুদ হারে  পরিশোধের সময়সীমা ৩ বছর মেয়াদি করা এবং ঋণ বিতরণের তারিখ হতে একবছর গ্রেস পিরিয়ড রেখে পরবর্তী  দুই বছরে পরিশোধের সময়সীমা নির্ধারণ করা। সরকারি আদেশ অনুযায়ী, লকডাউনে ছুটিতে যাওয়া হোটেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে সরকারের নিজস্ব তহবিল হতে ৫০০ কোটি টাকা  মাসিক বেতন ভিত্তিতে তাদের ব্যাংক হিসাবে সরাসরি অথবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে প্রদান করা। আবাসিক হোটেলগুলোর মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সব ইউটিলিটি বিল ইলেকট্রিক/ওয়াসা এবং গ্যাস বিল মওকুফ করা।সিটি করপোরেশন এবং পৌরসভার আওতাধীন আবাসিক হোটেল এবং রিসোর্টের হোল্ডিং ট্যাক্স ২০২০-২০২১ পর্যন্ত মওকুফ করা। আবাসিক হোটেল এবং রিসোর্টের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন থেকে কর কর্তন মওকুফ করা।

সংবাদ সম্মেলনে  র‌্যাডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন ও র‌্যাডিসন ব্লু চট্টগ্রামের  ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাব্বির আহমেদ, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও ঢাকার এক্সিকিউটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ফিন্যান্স) আসিফ আহমেদ, লং বিচ হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, লেকশোর হোটেল গুলশানের ব্যবস্থাপনা কাজী তারেক শামস, আমারি ঢাকার এমডি ও সিইও অশোক কেজরিওয়াল, রেনেসাঁ ঢাকা গুলশান হোটেলের জিএম আজিম শাহ, ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট লিমিটেডের আওতাধীন দ্য ওয়েস্টিন ঢাকা এবং হানসার সিইও সাখাওয়াত হোসেন, দ্য ওয়ে ঢাকার এমডি আহমেদ ইউসুফ ওয়ালিদ এবং বেস্ট ওয়েস্টার্ন প্লাস মায়ার সিইও রাশাদুল হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 191 People

সম্পর্কিত পোস্ট