চট্টগ্রাম সোমবার, ২৫ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

প্রাথমিক শিক্ষক-কর্মকর্তারা পাচ্ছেন বিশেষ মর্যাদা!

১৩ মে, ২০২০ | ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ

ঢাকা অফিস

প্রাথমিক শিক্ষক-কর্মকর্তারা পাচ্ছেন বিশেষ মর্যাদা!

মহামারী করোনায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জনসাধারণকে রক্ষায় কাজ করা প্রাথমিক স্তরের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের বিশেষ মর্যাদা দেয়া হচ্ছে। করোনার সঙ্কট মোকাবেলায় স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করা শিক্ষক-কর্মকর্তাদের স্বীকৃতি দিতে তালিকাও প্রস্তুুত করছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। এদিকে করোনায় বন্ধে সংসদ টিভিতে ক্লাস প্রচারের পর এবার রেডিওতেও প্রাথমিকের ক্লাস সম্প্রচারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তৃণমূল পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের কাছে শিক্ষা প্রচারের এ উদ্যোগ বলে জানিয়েছে অধিদফতর। করোনার ছোবলের মধ্যে জনসাধারণের জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করা যোদ্ধাদের জন্য কোন কোন ক্ষেত্রে আর্থিক নানা সুবিধার ঘোষণা দেয়া হলেও বিশেষজ্ঞরা একই সঙ্গে কাজে উৎসাহিত করতে সম্মান জানানোর পরামর্শও দিচ্ছেন। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ এমনকি আমাদের পার্শ্ববর্তী ভারতে চিকিৎসকসহ করোনার যোদ্ধাদের কাজের স্বীকৃতি দিতে তাদের কাজে অনুপ্রাণিত করতে ব্যতিক্রমী সব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশেও সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে করোনায় সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে যারা কাজ করছেন তাদের কাজে অনুপ্রাণিত করতে ব্যতিক্রমী কিছু করার কথা বলে আসছেন অনেক বিশেষজ্ঞ।
আর্থিক সুবিধার বাইরেও তাই এবার করোনা যোদ্ধাদের বিশেষভাবে সম্মানিত করতে যাচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। সারাদেশে অসংখ্য শিক্ষক কর্মকর্তা ইতোমধ্যেই স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে ঝুঁকি নিয়ে জনগণের সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন। যাদের স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ বলেছেন, হ্যাঁ আমরা সেইসব করোনা যোদ্ধাদের বিশেষভাবে সম্মানিত করতে চাই। সারাদেশে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে অসংখ্য শিক্ষক-কর্মকর্তা আছেন যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন। তাদের তালিকা আমরা প্রস্তুুত করছি। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা তালিকা প্রস্তুত করে পাঠাচ্ছেন।
মহাপরিচালক বলেন, আসলে যারা এভাবে কাজ করছেন তাদের কাজের স্বীকৃতি দিলে তারাও কাজে আগ্রহ পান। তারা অন্তত জানেন ভাল কাজের মর্যাদা আছে। এসব চিন্তা মাথায় রেখেই এ উদ্যোগ। মহাপরিচালক আরও বলেন, এ কাজে যারা স্বীকৃতি পাবেন তাদের তথ্য থাকবে আমাদের কাছে। পরবর্তীতে দেশের যে কোন সমস্যায় সময়ে মাঠ পর্যায়ে আমরা তাদের মাধ্যমে কাজ করতে পারব। এটা একটা ভাল পদক্ষেপ হবে। তিনি আরও বলেন, তাদের কাজের স্বীকৃতি আমরা দিতে চাই। এজন্য তাদের তালিকা সংগ্রহ করে ডাটাবেজ তৈরি করার কাজ শুরু হয়েছে। জানা গেছে, নির্ধারিত ছকে শিক্ষক-কর্মকর্তাদের তথ্য সংযুক্ত করে ইমেলে ১৭ মের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে পাঠাতে বলা হয়েছে বিভাগীয় উপ-পরিচালকদের। জেলা ওয়ারি আলাদা আলাদা ছকে শিক্ষক-কর্মকর্তাদের নাম, পদবি, বর্তমান কর্মস্থল, দায়িত্বের বিষয়ে এবং মন্তব্য উল্লেখ করে এসব পূরণ করতে হবে।
এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, শীঘ্রই সংসদ টিভিতে ক্লাস প্রচার ছাড়াও রেডিওতে প্রাথমিকের ক্লাস সম্প্রচার করা হবে। ইউনেস্কোর অর্থায়নে বাংলাদেশ বেতারে প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণীর ক্লাস প্রচার করা হবে।
মহাপরিচালক বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর এবং এটুআই সমন্বয় করে রেডিওতে প্রচারের কন্টেন্ট তৈরি করবে। যেগুলো বাংলাদেশ বেতারে প্রচার করা হবে। অন্যান্য বেসরকারি ভিডিওতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রচারের বিষয়টি মাথায় রাখা হয়েছে।
তিনি বলেন, খুব সহজে স্মার্টফোনের মাধ্যমে রেডিও শোনা যায়। তাই এ উদ্যোগের ফলে তৃণমূলের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে।

The Post Viewed By: 147 People

সম্পর্কিত পোস্ট