চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ জুন, ২০২০

অনলাইনে গ্লোবাল ভ্যাকসিন সামিটে যোগ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
অনলাইনে গ্লোবাল ভ্যাকসিন সামিটে যোগ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

৭ এপ্রিল, ২০২০ | ১২:১৯ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

এপ্রিল মাসে করোনার সংক্রমণ ব্যাপক ছড়াতে পারে : প্রধানমন্ত্রী

এপ্রিল মাসে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরকম কিছু আশঙ্কার কথা আমরা নানা প্রতিবেদনে দেখতে পেয়েছি। কাজেই আমাদের সবসময় সতর্ক থাকতে হবে। আগে থেকেই আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকালে গণভবন থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের জেলাগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়কালে তিনি এ আশঙ্কার কথা জানান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমেদ কায়কাউস।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। উন্নয়নের গতি যখন অব্যাহত, মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে যখন কাজ করে যাচ্ছি, ঠিক তখনই এলো করোনাভাইরাস। সারা বিশ্বে এটি প্রলয় সৃষ্টি করেছে। এজন্য সবকিছু স্থবির। এর প্রভাবটা বাংলাদেশে এসে পড়েছে। এটা পড়াও খুব স্বাভাবিক।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সারা বিশ্বে এই ভাইরাসটা কিভাবে প্রসারিত হয়। এটা অনেকটা অংকের মতো। অন্যান্য দেশ থেকে আমরা যে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করি তাতে মনে হচ্ছে যে আমাদের দেশেও এই ধাক্কাটা এপ্রিল মাসে আরও ব্যাপকভাবে আসার কথা। এ রকমই একটা আলামত পাওয়া যাচ্ছে। এ রকম কিছু প্রতিবেদন আমরা দেখতে পাচ্ছি। কিছু প্রেডিকশন দেখতে পাচ্ছি।’

‘আমি জানি যে এপ্রিল মাসটা আমাদের জন্য খুবই একটা দুঃসময়ের মাস আসছে। সব জায়গা থেকে সে খবর পাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  ‘আমাদের সর্বোচ্চ সতর্ক থাকবে হবে। আমাদের এমনভাবে চলতে হবে যে এর প্রভাবে আমাদের দেশের মানুষের যেন ক্ষতি কম হয়।’

কারো করোনার লক্ষণ দেখা দিলে না লুকিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, কারো মধ্যে যদি এতটুকু করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দেয় তিনি সঙ্গে সঙ্গে খবর দেবেন। চিকিৎসার যথাযথ ব্যবস্থা আছে। আমরা চিকিৎসার ব্যবস্থা করে রেখেছি।

‘কেউ লুকাতে যাবেন না। কারণ আপনি একজন লুকাবেন, আরও ১০ জনকে সংক্রমিত করবেন। কেউ লুকাবেন না। এটা কোনো লজ্জার বিষয় না।

‘আমরা চিকিৎসকদের জন্য পিপিইসহ সবধরনের সুরক্ষা ব্যবস্থা করেছি। কাজেই ভয়ের কিছু নেই।’

পূর্বকোণ/পিআর

The Post Viewed By: 162 People

সম্পর্কিত পোস্ট