চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন অন্যের লেখা চুরি করা সেই লেখিকা

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১০:২৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন অন্যের লেখা চুরি করা সেই লেখিকা

লেখা চুরি করে বই প্রকাশের জন্য আসল লেখিকার কাছে ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন ফারজানা হোসেন নামের একজন লেখকা। অবশ্য লেখা চুরির অভিযোগ ওঠার পরই প্রকাশক এই অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ফারজানার নামে প্রকাশিত সব বই মেলা থেকে তুলে নিয়েছেন।

অভিযোগ উঠেছে, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী লেখিকা জাহান রিমা অনেকদিন ধরেই বিভিন্ন মাধ্যমে লেখালেখি করে আসছেন। আর সেসব লেখা জোগাড় করে নিজের নামে বই প্রকাশ করেন ফারজানা হোসাইন। বিষয়টি জানাজানি হলে প্রকাশক ফারজানার সকল বই মেলা থেকে তুলে নেন।
এ নিয়ে ফেসবুকে জাহান রিমা লেখেন, ‘বিষয়টা খুব সিরিয়াস। এলার্মিং। গত বছরও বিষয়টি সামনে এনেছিলাম। সেটা ছিল আমার লেখা অনুকাব্য সিরিজ দিয়ে ফারজানা হোসেন নামে নিচের এই মেয়ে বই প্রকাশ করেছে কলম প্রকাশনী থেকে। বইয়ের নাম : মেঘেদের উড়ো চিঠি। সংকলন। সেই তখনই একই প্রকাশনী থেকে স্বনামধন্য লেখক সেলিনা হোসেনেরও বই আসে।

মাথায় আমার আগুন ধরে তখনই। মেজাজ ওঠে সপ্তরাগে। প্রতিবাদ এবং যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার সক্রিয়তা দেখে তারা তৎক্ষণাৎ “মেঘেদের উড়ো চিঠি” নামক বইটি দ্রুত মেলা থেকে সরিয়ে ফেলে। এজন্য এই মেয়ে ক্ষমা চায় আমার কাছে। কলম প্রকাশনীও ক্ষমা চায়; তবে সেই চাওয়ার এভিডেন্স পরবর্তীতে খুব সুন্দর করে মুছে ফেলেন তেনারা। হাহ!’
রিমা জানান, আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মেলায় প্রতিনিধি পাঠিয়ে বইটির কপি উদ্ধার করতে পারেননি। পরবর্তীতে বইমেলা থেকে এই ফারজানা হোসেনের ‘পেনড্রাইভ’ নামে আরেকটা বই পেয়ে সেখানেও তার লেখা চুরি করার প্রমাণ পান রিমা।
রিমা লিখেছেন, ‘ফারজানা হোসাইন ২০১৬ থেকে ২০২০ আমার লেখাকে তার লেখা বলে যাচ্ছেন। এমনই দুঃসাহস। এবং সে চুরির লেখা বই লিখে রীতিমত সাহিত্য বোদ্ধা!! সমাদৃত!! তিনি রাফা রাইটার্স ফাউন্ডেশনেরও সদস্য; চুরিকৃত লেখা দিয়ে। এই মহাচোর আমার প্রতিটা একেবারে প্রতিটা লেখা অক্ষরে অক্ষরে চুরি করে। এমনকি ফেসবুকে দেওয়া আমার প্রতিটা মন্তব্যও সে চুরি করে। আরও শুনবেন? এমনকি আমাকে নিয়ে লেখা আমার প্রিয়জনদের ট্যাগ করা লেখাও তিনি নাম বদলে তার প্রিয়জনদের জন্মদিন টন্মদিনে উপহার দেন আরকি! এই তথ্য পাই নিউইয়র্কের স্বনামধন্য একজন জার্নালিস্টের মাধ্যমে; যিনি আমার প্রিয় একজন বন্ধু। এই প্রিয় বন্ধু আমাকে নিয়ে লিখেছিলেন। এমনকি সেই লেখাটিও তিনি সামান্য নাম বদলে জন্মদিনে শব্দের-উপহার দিয়েছিলেন এক দারুণ পরিচিত পত্রিকার সাহিত্য সম্পাদককে। হায়!

এদিকে, নিন্দা ও সমালোচনার মুখে ফারজানা হোসাইন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে তার কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। লিখেছেন, ‘ভুল-ত্রুটি ও ভালো-মন্দের মিশেলে মানুষের জীবন। আমরা কেউই ভুল-ত্রুটির ঊর্ধ্বে নয়। তবে আমি যা করেছি সেটি পাপ। ২০১৯ সালে পেনড্রাইভ প্রকাশিত হয়। পেনড্রাইভ উপন্যাসটি সম্পূর্ণ রাজনীতি ও অপরাধ জগৎ নিয়ে লেখা। তবে আপুর স্ট্যাটাসের কয়েকটা লেখা আমি পেনড্রাইভে যুক্ত করি। লেখাগুলো মার্ক করে নিচে দিয়ে দিলাম।’

ফারজানা অনুতপ্ত বলে স্বীকার করে বলেন, ‘আমার একবছর আগের এই ভুলের জন্য আমি অনুতপ্ত এবং জাহান রিমা আপুর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি জানি জাহান রিমা আপু একজন উদারপ্রকৃতির মানুষ। তিনি আমাকে যে শাস্তি দিবেন আমি মাথা পেতে নিব। আপুর কাছে আরেকটা প্রার্থনা, আমার অপরাধের শাস্তি প্রকাশনী যেন না পায়।’
পূর্বকোণ/ এস

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 346 People

সম্পর্কিত পোস্ট