চট্টগ্রাম সোমবার, ২৫ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

তাপস জয়ী, আতিক বহু এগিয়ে

২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৩:৪৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক হ ঢাকা অফিস

তাপস জয়ী, আতিক বহু এগিয়ে

বিজয়ের বেশে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ নৌকার দুই প্রার্থীর হ দু’একটি বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভোট হ ৩০ শতাংশের মত ভোট পড়েছে : সিইসি

ঢাকা দক্ষিণে নৌকার প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস জয় নিশ্চিত করেছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৫। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ইশরাক হোসেন পেয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট। অপরদিকে উত্তরে নৌকার প্রার্থী আতিকুল ইসলাম শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বড় ব্যবধানে এগিয়ে ছিলেন। ১২৩৫ কেন্দ্রে ঘোষিত ফলাফলে আতিকুল পেয়েছেন ৪ লাখ ২৬ হাজার ৬৪৩ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির তাবিথ আওয়াল পেয়েছেন ২ লাখ ৫২ হাজার ১০৬ ভোট। গতকাল ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের দিনব্যাপী ভোটের পর রাতে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আসা ফলে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের দুটোতেই মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের দুই প্রার্থীকে বিপুল ভোটে এগিয়ে থাকতে দেখা যায়। রাতেই তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে দল থেকে তাদের মনোনয়ন দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান। তবে, এবারের ভোটে ভোটারের উপস্থিতি ছিল একবারেই নগন্য সংখ্যক। দু’একটি বিছিন্ন ছোটখাট ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই ভোট হয়েছে। নির্বাচন বিশ্লেষকরা মনে করেন, ভোটের প্রচারকা-ে এবার প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে যে জৌলুস লক্ষ্য করা গিয়েছিল, ভোটেরদিন তার লেশমাত্রও দেখা যায়নি। ভোটের চুড়ান্ত ফল ঘোষণার আগে সন্ধ্যায় সিইসি একেএম নূরুল হুদা ধারনা করে বলেছেন, তিনি কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে ও বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে যা আভাস পেয়েছেন, তাতে ৩০ ভাগের মত ভোট পড়েছে। বলাবাহূল্য, দক্ষিণ সিটিতে (ডিএসসিসি) ৭৫ ওয়ার্ডে ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৯৪ ভোটার। আর উত্তর সিটিতে (ডিএনসিসি) ৫৪টি ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ দশ হাজার ২৭৩ জন।

এদিকে ভোট দিতে গিয়ে ইভিএম মেশিনে আঙুলের ছাপ মেলেনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার। পরে তিনি জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর দিয়ে ভোট দিয়েছেন। শনিবার বেলা ১১টা ৫মিনিটে রাজধানীর উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরের আইইএস স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রের কলেজ ভবনের ৮ নম্বর কক্ষে ভোট দেন তিনি।

এদিকে, অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগের মধ্যে দিয়ে গতকাল শনিবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কোনোরকম বিরতি ছাড়াই ঢাকার দুই সিটিতে মেয়র ও কাউন্সিলর নির্বাচনের জন্য শান্তপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এবারই প্রথম ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে ব্যালট পেপারের পরিবর্তে ভোট ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডিএসসিসি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং বিএনপির মেয়রপ্রার্থী হিসেবে লড়ছেন ইশরাক হোসেন।

অপরদিকে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে মো. আতিকুল ইসলাম এবং বিএনপির মেয়রপ্রার্থী হিসেবে লড়ছেন তাবিথ আউয়াল।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সকাল ৮টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে ধানমন্ডির ঢাকা সিটি কলেজ কেন্দ্রে তার ভোট দেন। ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস ধানমন্ডির ড. মালেকা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে এবং উত্তরের মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম উত্তরা মডেল টাউন এলাকার নওয়াব হাবিবুল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজে ভোট দেন। বিএনপির ঢাকা দক্ষিণের মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন গোপীবাগ এলাকার শহীদ শাহজাহান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এবং দলের উত্তরের মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল গুলশানের মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন।

মেয়র পদে এবার লড়ছেন ১৩ জন প্রার্থী। এরমধ্যে উত্তরে ছয়জন এবং দক্ষিণে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাছাড়া, ডিএনসিসি নির্বাচনে মোট ৩৩৪ জন প্রার্থী ৭৩টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ৫৪টি পদে ২৫১ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ১৮টি সংরক্ষিত আসনে ৭৭ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন। অন্যদিকে ডিএসসিসি নির্বাচনে ৪১৬ জন প্রার্থী ১০১টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৭৫টি পদে ৩২৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ২৫টি সংরক্ষিত আসনে ৮২ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন।

The Post Viewed By: 158 People

সম্পর্কিত পোস্ট