চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

২৭ এপ্রিল, ২০১৯ | ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

ফিরোজ আলম সবুজ

নাট্যমঞ্চের নাট্য উৎসব সম্পন্ন

চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দেশের নিয়মিত নাট্য পত্রিকা ‘নাট্যমঞ্চ’ আয়োজিত ‘নাট্যমঞ্চ নাট্য উৎসব ২০১৯’ সমাপ্ত হলো গত ১০ এপ্রিল। চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত তিন দিনের এই নাট্য উৎসবের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিলো, চট্টগ্রামের তিনজন নাট্যকারের নাটক নিয়ে ত্রয়ী নাট্য উৎসব। দর্শকদের জন্য বাড়তি পাওনা ছিলো, তিনটি নাটকই মৌলিক নাটক।
উৎসবের প্রথম দিন ৮ এপ্রিল নাটক পরিবেশন করে চট্টগ্রামের অনন্য থিয়েটার। নাটকটি ছিলো প্রায়ত প্রখ্যাত নাট্যকার অধ্যপাক চৌধুরী জহুরুল হকের ‘চিঠি’। নাটকটি সম্পাদনা ও নির্দেশনায় ছিলেন সুচরিত চৌধুরী। বর্তমানে মোবাইল ফোনে কথা ও এসএমএস এর কল্যাণে চিঠি লেখা হারিয়েই গেছে। আবার এই চিঠি লেখাকে কেন্দ্র করে ব্যাক্তিগত, পারিবারিক ও সামাজিক নানারকম সম্পর্ক তৈরি ও সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার ঘটনাও ঘটতো। এ সবই ‘চিঠি’ নটিকে উপস্থাপিত হয়েছে। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুশোভন চৌধুরী, ডলি দাশ, তিলক চক্রবর্তী, দীলিপ রুদ্র ও অরুপ গাঙ্গুলী। আবহ সঙ্গীতে দেবাশীষ রায়,আলোক নিয়ন্ত্রণে দেবব্রত বণিক, শব্দ নিয়ন্ত্রণে প্রকৃত রঞ্জন দাশ ও বিজয় মজুমদার, মঞ্চ পরিকল্পনায় মিঠু দাশ ও জিয়াউর রহমানী শৈশব।
নাটক শেষে বিশিষ্ট গবেষক এবং চৌধুরী জহুরুল হক এর জীবন ও কর্ম নিয়ে নিরলস কাজ করে যাওয়া ড. ইলু ইলিয়াস সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। তিনি নির্দেশককে নাট্যমঞ্চের পক্ষ থেকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন এবং অনন্য থিয়েটারের সিনিয়র সংগঠক সুশোভন চৌধুরী ও ডলি দাশের হাতে উৎসব স্মারক তুলে দেন।
দ্বিতীয় দিন কুমিল্লার প্রতিবিম্ব থিয়েটার পরিবেশন করে জাহেদুল আলম রচিত ও ফারহানা আহমেদ নির্দেশিত নাটক ‘হোম সার্ভিস’। নাটকটির ইতোমধ্যে কুমিল্লা ও কক্সবাজারে ছয়টি মঞ্চায়ন সম্পন্ন করেছে। নাটকটি মূলত রম্য নাটক। অপরাধীকে ঘৃণা না করে সংশোধনের মাধ্যমে তাকে এবং সমাজকে ভারসাম্যপূর্ণ ও নিরাপদ রাখা যায়, এই বার্তাটি নাটকে স্পষ্টভাবে উচ্চারিত হয়েছে। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন, সালমা সরকার চৈতী, মাহমুদুল হাসান, ফারহানা আহমেদ, আশিক শিশির, পূজা দে, কামরুল ইসলাম রাশেদ ও নন্দন ভৌমিক।
এদিন নাটক শেষে দেশের প্রবীন নাট্যজন তির্যক নাট্যগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং কুমিল্লার প্রতিবিম্ব থিয়েটারের প্রাণপুরুষ শাহজাহান চৌধুরী বক্তব্য প্রদান করেন। রবিউল আলমের কাছ থেকে উত্তরীয় গ্রহণ করেন নির্দেশক ফারহানা আহমেদ এবং সম্মাননা স্মারক গ্রহণ করেন দলপতি শাহজাহান চৌধুরী। একইসাথে নাট্যচর্চায় বহুমাত্রিক অবদানের জন্য নাট্যমঞ্চ সম্পাদক জাহেদুল আলমকে প্রতিবিম্ব থিয়েটারের পক্ষ থেকে সন্মাননা স্মারক প্রদান কার হয়।
সমাপনী দিন চট্টগ্রাম থিয়েটার পরিবেশন করে ‘চাঁটগাইয়া নওজোয়ান’। নাটকটি সম্পূর্ণ চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় রচিত। মাদকের ভয়াবহ আগ্রাসন এবং এই আগ্রাসনের নেপথ্যে সমাজের মুখোশধারী ব্যাক্তিদের স্বরূপ উন্মোচিত হয়েছে নাটকটিতে। মোশরফ হোসেন দোভাষ রচিত ও নির্দেশিত নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন আব্দুল মাবুদ দোভাষ,আগুন, রাহুল, সাজু বৈদ্য, শংকর চক্রবর্তী, সুবীর বড়–য়া, শুভ, বিজয়, দিলীপ, প্রিয়াংকা, মোশারফ, সাগর, বাউল শিল্পী রতন সরকার ও দীপক চৌধুরী।
নাটক শেষে বিশিষ্ট নাট্যজন অধ্যাপক সনজীব বড়–য়া তাঁর বক্তব্যে এ দেশের আন্দোলন সংগ্রামে চট্টগ্রাম থিয়েটারের অবদান এবং পথনাটক চর্চায় সংগঠনটির বিশিষ্টতার কথা উল্লেখ করেন। একই সাথে চট্টগ্রাম থিয়েটার যে একজন নতুন নাট্যকার আবিস্কার করলো ও উপহার দিলো সেই বিষয়টিরও গুরুত্ব উপস্থাপন করেন। আগামী ৩ জানুয়ারী ২০২০ চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ‘নাট্যকার চৌধুরী জহুরুল হক স্মরণসন্ধ্যা’ এর আগাম আমন্ত্রণ জানিয়ে ‘নাট্যমঞ্চ নাট্য উৎসব ২০১৯’ এর সমাপ্তি হয়।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 322 People

সম্পর্কিত পোস্ট