চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০

৫ মে, ২০১৯ | ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

৬৫ শিশুসহ ৯০ জনের শরীরে এইডস ‘ছড়িয়ে’ চিকিৎসক গ্রেফতার

ইন্টারন্যাশনার ডেস্ক : এইচআইভি দূষিত সিরিঞ্জ ব্যবহার করে ৯০ জন রোগীর শরীরে এইডসের জীবাণু ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন পাকিস্তানের এক চিকিৎসক। এইচআইভি সংক্রমিত এই মানুষদের মধ্যে ৬৫ জনই শিশু।
পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের লারকানা জেলার পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার হওয়া সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক মুজাফফর ঘাংরো নিজেও এইচআইভি সংক্রমিত।
লারকানার পুলিশ প্রধান কামরান নওয়াজ বলেন, ‘স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা ওই চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছি। আমাদেরকে বলা হয়েছে, তারও এইচআইভি রয়েছে।’
গত সপ্তাহে লারকানার উপকণ্ঠে ১৮ শিশুর শরীরে এইচআইভি পাওয়ার পর টনক নড়ে কর্তৃপক্ষের। এর পর স্বাস্থ্য বিভাগ বড় পরিসরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালালে সংখ্যাটি কয়েক ডজন বেড়ে যায়।
‘পরীক্ষায় ৯০ জন এইচআইভি পজিটিভ হয়েছে। তার মধ্যে ৬৫ জন শিশু,’ বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন লারকানার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আবদুল রেহমান। এর পর একজন ডাক্তারের কারণেই অন্তত ৯০ জনের দেহে এইচআইভি ছড়ানোর বিষয় জানার কথা বলছে কর্তৃপক্ষ। ওই ডাক্তার জীবাণুযুক্ত সিরিঞ্জ ব্যবহার করেছেন বলে ধারণা তাদের। এদিকে, এইডস ছড়ানোর অভিযোগকে সিন্ধু স্বাস্থ্য কমিশনের ‘ষড়যন্ত্র’হিসেবে অভিহিত করেছেন গ্রেপ্তার হওয়া চিকিৎসক মুজাফফর ঘাংরো। নিজের এইচআইভি সম্পর্কেও জানতেন না বলে দাবি তার।
‘সিন্ধু স্বাস্থ্য কমিশন আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। আমি যদি জানতাম, আমার এইচআইভি/এইডস আছে, তাহলে নিশ্চয় চিকিৎসা নিতাম’।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 217 People

সম্পর্কিত পোস্ট