চট্টগ্রাম বুধবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

৩০ এপ্রিল, ২০১৯ | ১:৪৭ পূর্বাহ্ণ

যুক্তরাজ্যে ভাঙনের অশনিসংকেত!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ব্রেক্সিটের চলমান অনিশ্চয়তার মাঝে যুক্তরাজ্যের ভবিষ্যৎ প্রশ্নের মুখে পড়েছে। স্কটল্যান্ডের বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তি আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। এদিকে ব্রেক্সিট কার্যকর করতে আবারো উদ্যোগ গ্রহণে কাজ করছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। ২০১৪ সালে এক গণভোটে স্কটল্যান্ডের ভোটাররা সামান্য ব্যবধানে ব্রিটেনে থেকে যাবার পক্ষে রায় দিয়েছিলেন।
২০১৬ সালে গণভোটে সেখানকার প্রায় ৬২ শতাংশ মানুষ ব্রেক্সিটের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। তবে ব্রিটেনের মানুষ সামগ্রিকভাবে ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় দেওয়ায় স্কটল্যান্ডের মানুষ ইউরোপীয় ইউনিয়নে থেকে যাবার সুযোগ পাচ্ছেন না। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে তারা স্বাধীনতা চান কিনা, তা নিয়ে জল্পনাকল্পনা চলছে।
স্কটল্যান্ডের সরকার ও বিচ্ছিন্নতাবাদের সমর্থকরা ব্রেক্সিটের প্রেক্ষাপটে যুক্তরাজ্য থেকে স্বাধীনতার ইঙ্গিত দিচ্ছেন। খবর ডয়চে ভেলের। স্বাধীন স্কটল্যান্ডের প্রবক্তারা বৃহস্পতিবার থেকে তৃণমূল স্তরে নতুন এক আন্দোলন শুরু করতে চলেছেন।
‘ভয়েসেস ফর স্কটল্যান্ড’ নামের ক্রাউডফান্ডিং উদ্যোগ এরই মধ্যে প্রায় এক লক্ষ সমর্থক আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। চাঁদা হিসেবে প্রায় এক লক্ষ পাউন্ড সংগ্রহ করেছে এই উদ্যোগ।
যেসব ভোটার এখনো স্কটল্যান্ডের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে মনস্থির করতে পারছেন না, তাদের মন জয় করতে চেষ্টা করছেন তারা। এদিকে স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার বা মুখ্যমন্ত্রী নিকোলা স্টার্জন ২০২১ সালের মে মাসের আগেই স্বাধীনতার প্রশ্নে আবার গণভোট আয়োজনের প্রস্তুতির ঘোষণা করেছেন। ব্রেক্সিটের কারণে লন্ডনের অনুমতি ছাড়াই এমন গণভোট সম্ভব বলে তিনি মনে করেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 305 People

সম্পর্কিত পোস্ট