চট্টগ্রাম বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

করোনায় যে ৯ ধরনের রোগী ওমরাহ করতে পারবেন না

১২ অক্টোবর, ২০২০ | ৬:৫৯ অপরাহ্ণ

সৌদি আরব সংবাদদাতা

৫০ হাজার মুসল্লীর পবিত্র উমরাহ পালন

মহামারি করোনার দীর্ঘ ৭ মাস বন্ধ থাকা পবিত্র উমরাহ ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। এদিকে, ৭ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে গত ৪ অক্টোবর থেকে পবিত্র উমরা চালুর অনুমতি দেয় সৌদি সরকার। উমরাহ চালুর প্রথম ৯ দিনে পবিত্র উমরা সম্পন্ন করেছেন ৫০ হাজারের বেশি মানুষ। দিনশেষে এ সংখ্যা ৫৪ হাজারে পৌঁছাবে।

হারামাইন সূত্র জানায়, আজ সোমবার (১২ অক্টোবর) দুপুর পর্যন্ত ৫০ হাজারের বেশি মানুষ উমরা সম্পন্ন করেছেন। তবে এখনও মসজিদে হারাম পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি। আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে মসজিদে হারাম নামাজের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। ওই দিন থেকে দৈনিক ১৫ হাজার মানুষ উমরা পালনের সুযোগ পাবেন।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত মার্চ থেকে পবিত্র উমরার কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় সৌদি আরব। মহামারির কারণে এবার মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সমাবেশ হজও সীমিত আকারে পালিত হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে আসায় ৪ অক্টোবর সকাল থেকে উমরা পালনকারীদের জন্য মসজিদে হারাম খুলে দেয়া হয়। ওই দিন থেকে দৈনিক ৬ হাজার মুসল্লি উমরা পালন করছেন।

পবিত্র উমরার কার্যক্রমকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে সৌদি সরকার বেশ কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে শুধুমাত্র সৌদি আরবে অবস্থানরতরা ৪ অক্টোবর থেকে উমরা পালনের সুযোগ পেয়েছেন। একদিনে ৬ হাজার জন আলাদা আলাদা ছয়টি সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তারা উমরা পালন করছেন। দ্বিতীয় ধাপ ১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হবে। এ সময়ে একদিনে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার জনকে উমরার জন্য মসজিদে হারামে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে। এই দিন থেকে মসজিদে হারামে ৪০ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায়েরও সুযোগ পাবেন। তৃতীয় ধাপ ১ নভেম্বর থেকে সৌদি আরবে অবস্থান করা ও বিদেশ থেকে আসা উমরাযাত্রীদের মক্কার মসজিদে হারামে ঢুকতে দেয়া হবে। তখন প্রতিদিন ২০ হাজার মানুষ উমরা পালন এবং ৬০ হাজার মানুষ নামাজ আদায় করতে পারবেন। চতুর্থ ধাপে করোনা মহামারি দূর হওয়ার পর মসজিদে হারাম স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।

 

 

 

পূর্বকোণ/অভি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 110 People