চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ট্রাম্পকে ‘পুতিনের পোষা কুকুরছানা’ বললেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ‘পোষা কুকুরছানা’ বলেছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন। 

আসন্ন নির্বাচনের আগে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে ওহাইও অঙ্গরাজ্যের ক্লিভল্যান্ডে প্রথম বিতর্ক অনুষ্ঠানে চরম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। ৯০ মিনিটের এ বিতর্কের শুরু থেকেই ট্রাম্প ও বাইডেনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় চলে।

এএফপির খবরে জানা যায়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে বিধিনিষেধের কারণে বিতর্কমঞ্চে ওঠার পর ট্রাম্প ও বাইডেন পরস্পর হাত মেলাননি। আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

অন্যদিকে বিতর্কের এক পর্যায়ে ট্রাম্পকে ভাঁড় ও বর্ণবাদী হিসেবে আখ্যায়িত করেন বাইডেন। এমনকি ট্রাম্পকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি। খবর রয়টার্সের

ট্রাম্পও কম যাননি। বাইডেনের মধ্যে কোনো বিশেষ কিছু নেই বলে জানান তিনি। 

বিতর্কে ট্রাম্পের কর ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি তুলে ধরেন জো বাইডেন। সম্প্রতি নিউইয়র্ক টাইমসের অনুসন্ধানে উঠে এসেছে, গত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছরই আয়কর দেননি ট্রাম্প। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে তিনি মাত্র ৭৫০ ডলার করে কর দিয়েছেন। 

বাইডেন বলেন, একজন স্কুলশিক্ষকও এর চেয়ে বেশি কর পরিশোধ করেন। কর ফাঁকির অভিযোগ প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, তিনি লাখ লাখ ডলার কর দিয়েছেন।

বাইডেনের দাবি, ট্রাম্প পুরো বিতর্কটিকেই নস্যাৎ করে দেওয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছেন। এখানে তিনি যা বলছেন তার পুরোটাই অসত্য।

আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। শেষ মুহূর্তে ভোটারদের কাছে টানতে মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দুই হেভিওয়েট প্রার্থী। নির্বাচনি বিতর্কের জন্য গঠিত নিরপেক্ষ কমিশন প্রশ্নের জন্য মোট ছয়টি বিষয় নির্ধারণ করে দিয়েছেন। এর মধ্যে করোনা মহামারির বিষয়টিরও উল্লেখ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় এ পর্যন্ত ২ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে, যা বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় সবচেয়ে বেশি। মৃত্যুর এই হার নিয়ে ট্রাম্পকে আক্রমণ করেন বাইডেন। তিনি ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন, ‘করোনায় মারা যাওয়ায় রান্নাঘরের টেবিলে কতজনের চেয়ার খালি পেয়েছেন?’

পাল্টা জবাবে ট্রাম্প বলেন, কখনও আমার সঙ্গে বেশি চালাকির চেষ্টা করবেন না। তিনি করোনারোধে মাস্ক পরায় বাইডেনের উৎসাহ নিয়ে কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে মাস্ক রয়েছে। যখন প্রয়োজন হয় তখন আমি মাস্ক পরি। বাইডেনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আমি তার মতো মাস্ক পরি না। যখনই তার দিকে তাকাবেন দেখবেন মাস্ক পরে আছেন।’

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 89 People