চট্টগ্রাম বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ২:১৯ অপরাহ্ণ

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক

ব্রেওনা টেইলর হত্যাকাণ্ড: বিক্ষুব্ধদের গুলিতে দুই পুলিশ আহত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাদক ব্যবসায়ীকে ধরতে পুলিশের অভিযানে কৃষ্ণাঙ্গ তরুণী ব্রিয়ানা টেইলর নিহতের ঘটনায় কোন পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ না আনায় বিক্ষোভে উত্তাল কেন্টাকির লুইভিন শহর।  

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় বিক্ষোভকারীর প্রতিবাদের মধ্যেই দুই পুলিশ কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধও হয়েছেন বলে বিবিসি জানিয়েছে।

গুলিবিদ্ধ দুই কর্মকর্তার অবস্থাই আশঙ্কামুক্ত; এ ঘটনায় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন লুইভিলের পুলিশপ্রধান রবার্ট শ্রোয়েডার।

মেয়র গ্রেগ ফিশার রাত ৯টা থেকে পরদিন ভোর সাড়ে ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করলেও অনেক এলাকায় রাত ৯টার পরও হাজার হাজার বিক্ষোভকারীদের দেখা গেছে।

কেনটাকির গভর্নর অ্যান্ডি বেশির পরে বিক্ষোভকারীদের বাড়ি ফিরে যেতে অনুরোধ জানান।

“আমরা জানি, সহিংসতার জবাব কখনোই সহিংসতা হতে পারে না। আমরা এখন ওই দুই কর্মকর্তা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের কথা ভাবছি। আমি সবার প্রতি অনুরোধ করছি. দয়া করে বাড়ি ফিরে যান,” বলেন তিনি। 

এদিকে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় কেন্টাকি অঙ্গরাজ্য জুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডও।

গত বছরের ১৩ মার্চ মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনার সময় নিজ ফ্ল্যাটে গুলিতে নিহত হন টেইলর। তার শরীরে পাঁচটি গুলির ক্ষত পাওয়া যায়।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, পুলিশ কর্মকর্তারা পরোয়ানা ছাড়াই অভিযান চালিয়ে হত্যা করেছিল ২৬ বছর বয়সী টেইলরকে। ঘটনার দিন যার খোঁজে পুলিশ ওই এপার্টমেন্ট অভিযান চালায় তিনি সেখানে ছিলেনই না। সেই এপার্টমেন্টেও কোনো মাদকও পাওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকেই বিক্ষোভ শুরু হয়।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
  • 10
    Shares
The Post Viewed By: 110 People