চট্টগ্রাম শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

৫০ বছরে বিশ্বে বন্যপ্রাণি কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ
৫০ বছরে বিশ্বে বন্যপ্রাণি কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ

১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৯:২৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

৫০ বছরে বিশ্বে বন্যপ্রাণি কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ

গত ৫০ বছরে বিশ্বজুড়ে প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ বন্যপ্রাণি কমেছে। ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ডের (ডব্লিউডব্লিউএফ) বার্ষিক প্রতিবেদনে সম্প্রতি জানানো হয়, বন উজাড় এবং মানুষের মাত্রাতিরিক্ত ভোগের কারণে এই প্রাণির সংখ্যা কমেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, মানুষের হানায় এই ৫০ বছরে ভূপৃষ্ঠের চার ভাগের তিন ভাগ এবং সমুদ্রগুলোর ৪০ শতাংশ বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এমন অবস্থা প্রকৃতির জন্য বড় হুমকি বলে উল্লেখ করে বিজ্ঞানীরা বলছেন, নিজেদের প্রয়োজনেই প্রকৃতি রক্ষায় মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

ডব্লিউডব্লিউএফ’র সবশেষ ওই লিভিং প্লানেট প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৭০ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে গড়ে বন্যপ্রাণির সংখ্যা কমেছে প্রায় ৬৮ শতাংশ। ক্রমবর্ধমান হারে বন উজাড় এবং কৃষিক্ষেত্রের বিস্তারই এর পেছনে দায়ী।

ডব্লিউডব্লিউএফের আন্তর্জাতিক মহাপরিচালক মার্কো ল্যাম্বার বলেন, ৩০ বছর ধরে ক্রমাগত হ্রাস পেতে দেখছি এবং এটি ভুল পথে যাচ্ছে। ২০১৬ সালে ৬০ শতাংশের আর এখন ৭০ শতাংশ পতন দেখছি। এ গ্রহে লাখ লাখ বছর ধরে বেঁচে থাকা অনেক প্রজাতির জন্য এটিকে চোখের পলক ফেলার সঙ্গে তুলনা করা যায়।

প্রতিবেদনে চার হাজারের বেশি মেরুদণ্ডী প্রাণিকে নিয়ে গবেষণা করে ১২৫ জন বিজ্ঞানী জানান, সবচেয়ে বেশি ৮৪ শতাংশ কমেছে মিঠাপানিতে বসবাসকারী প্রাণির সংখ্যা। এরপর সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত প্রজাতির মধ্যে রয়েছে কঙ্গোর গরিলা এবং ঘানার আফ্রিকান ধূসর তোতা।

বিজ্ঞানীরা বলেছেন, করোনার মতো যেসব রোগ বন্যপ্রাণি থেকে মানবদেহে ছড়াতে পারে, সেগুলোর প্রকোপ বৃদ্ধির পেছনে অন্যতম বড় কারণ দ্রুত বন উজাড় হওয়া।

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 73 People

সম্পর্কিত পোস্ট