চট্টগ্রাম সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

২১ জুলাই, ২০২০ | ৬:০২ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার মৃত্যু পর্যন্ত হাসপাতালের জানালায় বসেছিল ছেলে!

করোনা মহামারিতে একদিকে পুরো বিশ্ব বিপর্যস্ত অপরদিকে কিছু কিছু হৃদয়বিদারক দৃশ্য আমাদের আবেগতাড়িত করে। নতুন করে সম্পর্কে বিশ্বাস জন্মাতে সাহস জোগায়।

মহামারী করোনাভাইরাসের ছোবলে দিশেহারা বিশ্ব। একের পর এক স্বজন হারাচ্ছে মানুষ। ভাইরাসটির সংক্রমণে থাকা রোগী বা মৃত কারো সঙ্গেই দেখা করতে পারছেন না স্বজনেরা। সৎকার বা দাফন হচ্ছে স্বজন ছাড়া। এর মধ্যে ঘটেছে একটি হৃদয়বিদারক ঘটনা। আইসিইউ-তে করোনা আক্রান্ত মা যতক্ষণ বাঁচলেন, ততক্ষণ হাসপাতালের জানালার পাশে বসেছিল ছেলে।

হৃদয়বিদারক এ ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ফিলিস্তিনে। ৩০ বছরের এক যুবক হাসপাতালের কয়েকতলা উপরের কাচের জানালার পাশে বসে ভেতরের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। যার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। মায়ের সঙ্গে দেখা করার কোনো উপায় ছিল না। তাই দূর থেকেই মাকে বিদায় জানালো ছেলে।

৩০ বছরের এই যুবক কেন এমনভাবে হাসপাতালের জানালার পাশে বসে আছেন? সেই খবর নিতেই বেরিয়ে এলো হৃদয়বিদারক তথ্য।

জানা গেছে, ওই যুবকের নাম জিহাদ আল সুয়াইতি। তার মা করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালেই ভর্তি ছিলেন। সরকারি হাসপাতালের ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি মাকে দেখতে যাওয়ার অনুমতি স্বাভাবিকভাবে পায়নি ছেলে। তাই জানালার পাশে বসে মায়ের জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি।

শেষ সময়েও মায়ের কাছ থেকে সরে যেতে চায়নি এ যুবক। জানালা দিয়েই মায়ের মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়া দেখেছে ছেলে। যতদিন মা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, ততদিন রাতে ওই জানালার ধারে বসে থাকতেন এ যুবক। মহম্মদ সাফা নামে একজন ছবিটি শেয়ার করে এ ব্যাপারে লিখেছেন।

আগে থেকেই লিউকোমিয়ার রোগী মায়ের শরীরে করোনা সংক্রমণ করে। পরে তাকে পাঁচদিন হাসপাতালে ভর্তি থাকতে হয়েছিল। তার অসহায় লাগতো বলে তিনি হাসপাতালের জানালার পাশে বসে থাকতেন এবং মাকে দেখতেন।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 245 People