চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই, ২০২০

উইঘুর মুসলিমদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করছে চীন
উইঘুর মুসলিমদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করছে চীন

৩০ জুন, ২০২০ | ৬:৩৬ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

উইঘুর মুসলিমদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করছে চীন

মুসলিমদের সংখ্যা যাতে বাড়তে পারে সেজন্য উইঘুর মুসলিমদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করছে চীনা সরকার। বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস’র অনুসন্ধানে দেশটির জিনজিয়াং প্রদেশে জোরপূর্বক গর্ভপাত করানো হচ্ছে বলে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

এপি’র বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা’র প্রতিবেদনে বলা হয়, জন্মহার কমানোর নামে চরম নির্মমতা চালাচ্ছে চীনা প্রশাসন। বিশেষজ্ঞরা একে গণহত্যার শামিল বলে উল্লেখ করেছেন। তবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এই প্রতিবেদনকে ভুয়া খবর বলে দাবি করেছেন।

প্রায় চার দশক আগে জন বিস্ফোরণ ঠেকাতে এক সন্তান নীতি চালু করে বিশ্বের জনবহুল দেশ চীন। পরে বয়স্কদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় দুই সন্তানের অনুমোদন দেয়া হলেও আইনে তিন সন্তান নেয়ার ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। এমন আইনের পরও শি জিন পিং সরকার উইঘুর মুসলিমদের জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাধ্য করছে।

আল-জাজিরা’র প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর চীনে জন্মহার কমেছে ৪ দশমিক ২ শতাংশ। সেখানে জিনজিয়াং প্রদেশে এই হার ২৪ শতাংশ বেড়েছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, গোপনে কেউ সন্তান জন্ম দিচ্ছে কিনা এমন সন্দেহে অভিযান চালানো হচ্ছে। এমনকি গণহারে প্রেগনেন্সি পরীক্ষাও করা হচ্ছে। তিন সন্তান জন্মের তথ্য জানলেই গুনতে হচ্ছে মোটা অঙ্কের জরিমানা। শুধু তাই নয়, জন্মহার কমাতে পরিবারের পুরুষদের গণহারে গ্রেপ্তার করার মতো অমানবিকতাও চালাচ্ছে চীন সরকার।

চীনা গবেষক আদ্রিন জেনজ বলেন, সরকার জিনজিয়াং প্রদেশে জন্মহার কমানোর যে চেষ্টা করছে সেই পদ্ধতি প্রশ্নের মুখে। বারংবার নির্মমতার কথা উঠে আসছে। নারীদের যেভাবে জোরপূর্বক গর্ভপাত করানো স্পষ্ট জন্মনিয়ন্ত্রণ নীতির লঙ্ঘন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

The Post Viewed By: 103 People

সম্পর্কিত পোস্ট