চট্টগ্রাম রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০

ভারতে আম্ফানের পর এবার 'পঙ্গপালের' তাণ্ডব
ভারতে আম্ফানের পর এবার 'পঙ্গপালের' তাণ্ডব

৬ জুন, ২০২০ | ৫:০৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে আম্ফানের পর এবার ‘পঙ্গপালের’ তাণ্ডব

একদিনে করোনার তাণ্ডব অন্যদিকে ঘূর্নিঝড় আম্ফান।আম্ফানের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই পুরো ভারতজুড়ে দেখা দিয়েছে পঙ্গপালের বিচরণ। রাজস্তান, পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্রের পর পঙ্গপালের দল দেশটির মধ্য ও উত্তর প্রদেশে একের পর এক জমির ফসল খেয়ে সাবাড় করে দিচ্ছে। এখন সেটি এগিয়ে আসছে ভোপাল ও উড়িশ্যার দিকে। বাংলাদেশের সীমানা থেকে খুব কাছের ওই দুই প্রদেশে পঙ্গপালের হানা দেশের কৃষিবিদ ও সরকারকে ভাবিয়ে তুলেছে।

এর আগে গত বছর বাংলাদেশে ভুট্টার জমিতে আর্মি ওয়ার্ম আক্রমণকারী  পোকাটি প্রথম বছরেই দেশের ৩১টি জেলার ভুট্টার জমিতে ছড়িয়ে পড়ে। তবে সরকারের তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়ার কারণে সেটি মাত্র ৪ শতাংশ ভুট্টার ক্ষতি করে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অনুরোধে এফএও থেকে বাংলাদেশে পঙ্গপালের আক্রমণের আশঙ্কা কতটুকু এবং ওই পতঙ্গটি যদি চলে আসে, তাহলে কী ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে—এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছে এফএওর বৈশ্বিক পঙ্গপাল পর্যবেক্ষণবিষয়ক সংগঠন লুকাস্ট ওয়াচ। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে পঙ্গপাল আক্রমণের আশঙ্কা খুব কম। পঙ্গপাল দমনে অযথা বিষাক্ত রাসায়নিক ব্যবহার না করার ব্যাপারে সুপারিশ করা হয়েছে ।

 

এদিকে বাংলাদেশে পঙ্গপালের আক্রমণের আশঙ্কা নেই বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। তবে এটি যদি আক্রমণ করে, তাহলে যাতে বড় ধরনের বিপর্যয় না ঘটে, সে জন্য মাঠপর্যায়ে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এই পতঙ্গের আক্রমণের আশঙ্কা বাংলাদেশে কম হলেও প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকারি সংস্থাগুলো।

 

এদিকে সরকারের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে পঙ্গপালের ব্যাপারে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। মূলত কোথাও পঙ্গপাল দেখা গেলে তা সরকারকে দ্রুত জানানোর পাশাপাশি কী ধরনের বালাইনাশক ব্যবহার করে তা দমন করতে হবে, তা নিয়েও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

পঙ্গপালের বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের কীটতত্ত্ব বিভাগের পরিচালক দেবাশীষ সরকার  বলেন, পঙ্গপাল দমনে ভারতের গুজরাটসহ বিভিন্ন রাজ্য ফসলের মাঠে হাঁস পালন বেশ কার্যকর পদ্ধতি। হাঁস প্রচুর পঙ্গপাল খেতে পারে। বাংলাদেশেও হয়তো এ বছর পঙ্গপালের আশঙ্কা কম। কিন্তু কোনো কারণে যদি এটি ভবিষ্যতে বাংলাদেশে আক্রমণ করে, তাহলে তার প্রস্তুতি এখন থেকেই শুরু করতে হবে। হাঁস পালনের মতো প্রাকৃতিক পদ্ধতির দিকে আমাদের নজর দিতে হবে। 

 

পূর্বকোণ/ এএ 

The Post Viewed By: 115 People

সম্পর্কিত পোস্ট