চট্টগ্রাম বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০

সর্বশেষ:

ড্রোন হামলায় লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যার মূল হোতা নিহত

৩ জুন, ২০২০ | ৭:৩০ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ড্রোন হামলায় লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যার মূল হোতা নিহত

লিবিয়ার মিজদাহ শহরে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জন অভিবাসীকে এক ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন হত্যার মূলহোতা খালেদ আল মিশাই। ত্রিপোলি থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরের শহর ঘারিয়ানে গতকাল মঙ্গলবার (৩ মে) লিবিয়ার বিমানবাহিনীর ড্রোন হামলায় নিহত হন তিনি। লিবিয়ার ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য লিবিয়া অবজারভার’ মঙ্গলবার রাতে টুইটে এ তথ্য জানিয়েছে।

লিবিয়ার অপহরণকারীদের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে গত বুধবার (২৭ মে) বাংলাদেশ ও সুদানের অভিবাসনপ্রত্যাশীরা স্থানীয় এক অপহরণকারীকে মেরে ফেলেন। এর জেরে পরদিন মিলিশিয়ারা নির্মমভাবে ২৬ জন বাংলাদেশিসহ ৩০ অভিবাসীকে হত্যা করে। এ ঘটনায় আহত হন আরও ১১ জন বাংলাদেশি। নিহত ২৬ জন বাংলাদেশিই ছিলেন মানব পাচারের নির্মম শিকার

নিহতরা পাঁচ মাস আগে ইতালি যাওয়ার উদ্দেশ্যে দেশ ছেড়েছিলেন। ১৫ দিন আগে লিবিয়ার বেনগাজি থেকে ত্রিপোলি হয়ে ইউরোপ যাত্রার পথে তাঁরা দু’দফা অপহরণকারীদের হাতে জিম্মি হয়েছিলেন। শেষ দফায় অপহরণকারীদের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে আফ্রিকার জিম্মিদের সঙ্গে মিলে অপহরণকারীদের একজনকে হত্যা করলে এর জেরে তাঁদের বেঘোরে প্রাণ দিতে হয়।

আল জাজিরা ও মিডল ইস্ট আইয়ের খবরে জানানো হয়, লিবিয়ার অন্তর্বর্তী সরকার জিএনএর সঙ্গে ফিল্ড মার্শাল খলিফা বেলকাশিম হাফতারের মিলিশিয়া বাহিনীর ত্রিপোলি থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরের কৌশলগত পার্বত্য শহর ঘারিয়ানের দখল নিতে তুমুল লড়াই চলছে। লিবিয়ার বিমান বাহিনী গত কয়েক দিনের ওই লড়াইয়ে হাফতার মিলিশিয়াদের ওপর ড্রোন হামলা চালাচ্ছে। গত কয়েক দিনের লড়াইয়ে হতাহত হয়েছেন দুই পক্ষের অনেক লোক।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ সেকান্দার আলী বলেন, বিভিন্ন সময় এ ধরনের তথ্য আসে। তবে এখনো কত বাংলাদেশি আটক এটা নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। দুর্গম মরু এলাকা দিয়ে পাচারকারীরা লোকজনকে নিয়ে যাওয়ার কারণে নিশ্চিতভাবে তথ্য জানতে সময় লাগে। আরও বাংলাদেশি আটকে থাকলে তার বিষয়ে দূতাবাস খোঁজ নেবে বলেও জানান তিনি।

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/আরপি

The Post Viewed By: 129 People

সম্পর্কিত পোস্ট