চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০

বেতন নেই, ভারতের তেলঙ্গানায় কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে নিহত ৯

২৩ মে, ২০২০ | ৩:৩২ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ছবি-পিটিআই

বেতন নেই, ভারতের তেলঙ্গানায় কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে নিহত ৯

ভারতের তেলঙ্গানা গ্রামে লকডাউন পরিস্থিতির মধ্যে দুই মাস বেতন না পাওয়া শ্রমিকের পরিবারসহ ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ছ’জন পশ্চিমবঙ্গের এবং একই পরিবারের। দু’জন বিহারের। এক জন ত্রিপুরার। খবর আনন্দবাজার।

বৃহস্পতিবারই মুখ্যমন্ত্রী কে সি রাও জানিয়েছেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার জন্য ট্রেন-বাসের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। হেঁটে যেন কেউ বাড়ির পথ না-ধরেন। সে দিনই হায়দরাবাদের উপকণ্ঠে গোরেকুন্টা গ্রামে এই কুয়োটি থেকে চার জনের দেহ উদ্ধার হয়। শুক্রবার মেলে আরও পাঁচ জনের।

পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, এটা গণ-আত্মহত্যা। লকডাউনের কারণে ঘরে ফিরতে পারছিলেন না। এছাড়া গত   দু’মাস ধরে জুটমিল ও অন্য কারখানা থেকে বেতন পাননি এই শ্রমিকেরা। কারও শরীরে আঘাতের চিহ্নও নেই। ফলে হত্যার ঘটনা হওয়ার সম্ভবনা কম বলে মনে করা হচ্ছে। ঘরে ফিরতে না-পারা, আশ্রয় হারানো এবং চরম আর্থিক সঙ্কট নিয়ে সকলেরই অবস্থা ছিল কোণঠাসা।

পশ্চিমবঙ্গের মকসুদ আলম ২০ বছর আগে গোরেকন্টার এক জুট মিলে কাজ পান। কারখানার সাথে লাগানো দু’টি ঘরে সপরিবার থাকতেন তিনি। লকডাউনে বেতন বন্ধ হয়। হারান আশ্রয়ও।

স্থানীয় এক দোকানদার নিজের গুদামে আশ্রয় দিয়েছিলেন তাদের। তারই কাছে এই কুয়োটি। যা থেকে মিলেছে মকসুদ, তার স্ত্রী নিশা, দুই ছেলে সোহেল ও শাবাদ, মেয়ে বুশরা খাতুন এবং তিন বছরের নাতি শাকিলের দেহ। ত্রিপুরার বাসিন্দা শাকিল আহমেদ জুট মিলের গাড়ি চালাতেন। এ ছাড়া বিহারের শ্রীরাম ও শ্যাম অন্য একটি কারখানায় কাজ করতেন।  এরা সকলে একই কুয়োয় কী ভাবে মারা গেলেন সে ব্যাপারে এখনো কিছু জানায়নি পুলিশ।

পূর্বকোণ/পিআর

The Post Viewed By: 118 People

সম্পর্কিত পোস্ট