চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৮০, আক্রান্ত ১৪৩৭৮

১৮ এপ্রিল, ২০২০ | ১২:৫৭ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৮০, আক্রান্ত ১৪৩৭৮

ভারতে নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৩৭৮ জনে। শনিবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এমন খবর দিয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে ৯৯১ জন আক্রান্ত ও ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রেই মারা গিয়েছেন ২০১ জন।

করোনা সংক্রমণের ভরকেন্দ্র মহারাষ্ট্র। গোটা দেশের নিরিখে আক্রন্তের সংখ্যা ও মৃত্যু, দুটি ক্ষেত্রেই শীর্ষে রয়েছে ওই রাজ্যটি। মোট ৩ হাজার ৩২৩ জন আক্রান্ত ওই রাজ্যে। এর ঠিক পরেই রয়েছে দিল্লি। সেখানে এক হাজার ৭০৭ জন আক্রান্ত। এ ছাড়াও, হাজারের বেশি আক্রান্ত হয়েছেন তামিলনাড়ু (১৩২৩), মধ্যপ্রদেশ (১৩১০), রাজস্থান (১২২৯) ও গুজরাতে (১০৯৯)। ৭৬৬ জন আক্রান্ত তেলঙ্গনায়। অন্ধ্রপ্রদেশে আক্রাম্তের সংখ্যা হয়েছে ৫৭২।

পশ্চিমবঙ্গে এখনও পর্যন্ত করোনা ধরা পড়েছে ২৮৭ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩২ জন বেড়েছে। এই তথ্য অবশ্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের। নবান্ন জানাচ্ছে, এ রাজ্যে ‘অ্যাক্টিভ’ করোনা রোগী রয়েছেন ১৬২ জন। মৃত্যু হয়েছে মোট ১০ জনের।

এদিকে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্যমতে, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ছাড়িয়েছে। আর মারা গেছেন দেড় লাখেরও বেশি।

করোনা প্রাদুর্ভাবের চার মাস পর গত ১০ এপ্রিল কোভিড-১৯ রোগে বিশ্বেজুড়ে মৃতের সংখ্যা লাখ ছুঁয়েছিল। তার মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে আরও ৫০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। সেই সংখ্যা এখন এখ লাখ ৫৪ হাজার ২১৫ জন। কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫ লাখ ৬৪ হাজার ৫২৫ জন।

মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র; দেশটিতে প্রায় ৩৩ হাজার মানুষ ইতোমধ্যে মারা গেছেন এই রোগে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইতালির চেয়ে এই সংখ্যা ১০ হাজার বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রে গত এক সপ্তাহে মৃত্যুর সংখ্যা দ্বিগুণ বেড়েছে। ইতালিতে ও স্পেনে এই এক সপ্তাহে মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ৪ হাজার করে।

এদিকে করোনাভাইরাসে তিন লাখ আফ্রিকান মারা যেতে পারেন। এছাড়া দুই কোটি ৯০ লাখ মানুষ চরম দরিদ্রের মধ্যে পড়ে যেতে পারেন বলে ঝুঁকি রয়েছে। জাতিসংঘের আফ্রিকান অর্থনৈতিক কমিশন ইউএনসিএ শুক্রবার এমন দাবি করেছে।-খবর রয়টার্সের

মহাদেশটির জন্য সুরক্ষা অর্থ হিসেবে ১০ হাজার কোটি ডলার দাবি করেছে এই সংস্থাটি। আফ্রিকান ৫৪টি দেশে এখন পর্যন্ত ২০ হাজারের কিছুটা কম সংখ্যক লোক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

বিশ্বজুড়ে যেখানে ২০ লাখ মানবদেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে, সেখানে এই সংখ্যাটি একটি ক্ষুদ্র অংশ মাত্র।

কিন্তু বৃহস্পতিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হুশিয়ারি দিয়ে বলেছে, আগামী তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে এক কোটি আফ্রিকান করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন।

আফ্রিকার অর্থমন্ত্রীরা যে ১০ হাজার কোটি ডলারের প্রণোদনার ঘোষণা দিয়েছে, তাতেও সায় দিয়েছে ইউএনইসিএ। এতে বিদেশি ঋণসেবা স্থগিতের বিষয়টিও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

মহাদেশটির সরকারগুলোর নেয়া প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ মাত্রার ওপর ভিত্তি করে চারটি দৃশ্যকল্পের মডেল দাঁড় করিয়েছে সংস্থাটি।

কাজেই সব ধরনের পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেসব অভাব রয়েছে, তার ওপর ভিত্তি করে সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ১২০ কোটি আফ্রিকান নাগরিক করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন, যাদের মধ্যে ৩৩ লাখ চলতি বছরে মারা যেতে পারেন।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 206 People

সম্পর্কিত পোস্ট