চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

অ্যাভিগানের উৎপাদন বাড়াচ্ছে জাপান

১৬ এপ্রিল, ২০২০ | ৩:৪২ পূর্বাহ্ণ

অ্যাভিগানের উৎপাদন বাড়াচ্ছে জাপান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : কভিড-১৯ এর জন্য নির্দিষ্ট কার্যকরী ওষুধ বাজারে না এলেও এর চিকিৎসার জন্য অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ ‘অ্যাভিগানের’ উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়েছে জাপান।
জাপানের ফুজিফিল্মের তয়োমা ফার্মাসিউটিক্যালসের অ্যাভিগান ইনফ্লুয়েঞ্জার ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। সম্প্রতি নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় ওষুধটি ভালো ফল দিচ্ছে বলে কেউ কেউ দাবি করেছেন। অন্য কোনো দেশে ওষুধটির উৎপাদন ও বিতরণের অনুমতি নেই।
অ্যাভিগানের উদ্ভাবক কোম্পানি তয়োমা ফার্মাসিউটিক্যালস বুধবার এক বিবৃতিতে ওষুধটির উৎপাদন বাড়ানোর ঘোষণা দেয়। ফুজিফিল্ম কর্পোরেশনের প্রেসিডেন্ট কেনজি সুকেনো বিবৃতিতে বলেন, কভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য ইনফ্লুয়েঞ্জার অ্যান্টিভাইরাল ফ্যাভিপিরাভির ড্রাগ ‘অ্যাভিগান’ উৎপাদনের মাত্রা বাড়ানো হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, মার্চ মাসের তুলনায় আড়াই গুণ উৎপাদন বাড়িয়ে প্রতি মাসে এক লাখ রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে এমন পরিমাণ ওষুধ তারা আগামী জুলাইয়ের মধ্যে সরবরাহ করবে। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে তিন লাখ রোগীর জন্য এ ওষুধ উৎপাদন করবে তারা।
ফুজিফিল্মের তয়োমা ফার্মাসিউটিক্যালস এ ওষুধ উৎপাদনের দায়িত্বে রয়েছে। তাদের আরেক সহেযাগী কোম্পানি ওয়াকো পিউর কেমিক্যালস অ্যাভিগানে কাঁচামাল সরবরাহ করবে। জাপানিজ অ্যাসোসিয়েশন ফর ইনফেকশন ডিজিজেস এক বিবৃতিতে বলছে, ফ্যাভিপিরাভির ওষুধটি সার্স-কভ-২ চিকিৎসায় ‘ভালো ফল দিয়েছ’। জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে গত ৭ এপ্রিল এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, কভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ অ্যাভিগান ট্যাবলেট তৈরি করে বিভিন্ন দেশে বিনামূল্যে সরবরাহ করবে জাপান। প্রায় ১ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের জরুরি বাজেটের একটি বড় অংশ থাকছে অ্যাভিগান উৎপাদনের জন্য।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 309 People

সম্পর্কিত পোস্ট