চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

করোনাভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগ

১৭ মার্চ, ২০২০ | ১:৫৭ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনাভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে মানবদেহে প্রথম প্রয়োগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির সিয়াটল শহরের জেনিফার হলারের ওপর করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে। স্থানীয় সময় ১৬ মার্চ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ (ট্রায়াল) শুরু হয়েছে।

৪৩ বছর বয়সী হলার সিয়াটলের একটি স্টার্টআপের অপারেশনস ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেন। 

সিয়াটলের কায়সার পারমানেন্তে ওয়াশিংটন রিসার্চ ইনস্টিটিউট থেকে প্রথম ইনজেকশনের মাধ্যমে টিকা নেন হলার। হলার বলেন, এই মহামারি থেকে রক্ষা পেতে ভূমিকা রাখতে পারে বলে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছেন হলার। ৪৩ বছর বয়সে এসেও তাঁর স্বাস্থ্য ভালো। তিনি ভালো বেতন পান এবং বাড়িতে বসে কাজ করতে পারেন। তাঁর দুই সন্তান নিজের দেখাশোনা নিজেরাই করতে পারে। করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে নেওয়ার পর আপাতত তাঁকে বেশি কিছু করতে হচ্ছে না। এখন কোনো উপসর্গ দেখা যায় কি না, তা নিয়মিত পরীক্ষা করা দেখায় তাঁর কাজ। দ্বিতীয়বার ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য অপেক্ষায় আছেন তিনি। এ ছাড়া তাঁর রক্ত পরীক্ষাও করা হবে। খবর বিবিসির

কায়সার পারমানেন্তের পক্ষ থেকে সিয়াটলে প্রথম ৪৫ জন ১৫ থেকে ৫৫ বছর বয়সী স্বাস্থ্যবান স্বেচ্ছাসেবককে পরীক্ষার জন্য নির্ধারণ করা হয়। 

মর্ডানাস ‘এমআরএনএ-১২৭৩’ নামের ভ্যাকসিনটিতে সার্স-সিওভি-২ করোনভাইরাস থেকে মেসেঞ্জার আরএনএর নিষ্ক্রিয় খণ্ড ব্যবহার করা হয়। এ পরীক্ষার প্রথম দফার লক্ষ্য হচ্ছে মানুষের শরীরের জন্য নিরাপদ কি না, তা পরীক্ষা করা।

গবেষকদের দাবি, এতে ভাইরাসের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় সংক্রমণের ঝুঁকি নেই। আগামী এক থেকে দেড় বছরের মধ্যে কায়সার পারমানেন্তের গবেষক লিসা জ্যাকসনের নেতৃত্বে একদল গবেষক এ ভ্যাকসিন করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে কতখানি কার্যকর, তা পরীক্ষা করে দেখবেন।

দ্রুত কর্মপরিকল্পনার জন্য দ্য ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের (এনআইএইচ) পক্ষ থেকে এ পরীক্ষার অর্থায়ন করা হচ্ছে। এনআইএইচ ও মডার্না ইনকরপোরেশনের যৌথ সহযোগিতায় এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে।

কায়সার পারমানেন্তের পক্ষ থেকে সিয়াটলে প্রথম ৪৫ জন ১৫ থেকে ৫৫ বছর বয়সী স্বাস্থ্যবান স্বেচ্ছাসেবককে পরীক্ষার জন্য নির্ধারণ করা হয়। পরীক্ষায় যাঁরা অংশ নিচ্ছেন, সবাই ১০০ মার্কিন ডলার করে পাবেন। চিকিৎসকেরা তাঁদের দুবার ইনজেকশন দেবেন এবং পরে কয়েকবার পরীক্ষা করে দেখবেন।

হলার ও ব্রাউনিং ছাড়াও আরও দুজন স্বেচ্ছাসেবক গতকাল সোমবার প্রথমবারের মতো ইনজেকশন নিয়েছেন। যাঁরা পরীক্ষায় অংশ নিতে ইচ্ছুক, এখনো তাঁদের জন্য দরজা খোলা রেখেছে কায়সার পারমানেন্তে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 243 People

সম্পর্কিত পোস্ট