চট্টগ্রাম শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০

করোনার আতঙ্কের মধ্যেই চীনা তরুণীকে বিয়ে করলেন বাঙালি যুবক

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৯:০১ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

করোনার আতঙ্কের মধ্যেই চীনা তরুণীকে বিয়ে করলেন বাঙালি যুবক

সাত বছর আগে চীন ভ্রমণের সময় এক চীনা তরুণীর প্রেমে পড়েন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর জেলার এক তরুণ। অবশেষে তারা দুজনে বিয়ে করেছেন। বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছে বরের মেদিনীপুরের বাড়িতে। করোনা ভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেও চীনা তরুণীর সঙ্গে বাঙালী যুবকের বিয়ে নিয়ে চলছে মুখরোচক নানা আলোচনা।
বর কাঁথির পশ্চিম পারুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা পিন্টু। আর কনে চীনের গোয়াং প্রদেশের বাসিন্দা অ্যাঞ্জেল।
জানা যায়, সাত বছর আগে ছোটো মামার হাত ধরে চীনে কাপড়ের ব্যবসা করতে গিয়েছিল পিন্টু। সেখানেই পরিচয় অ্যাঞ্জেলের সঙ্গে। শেষমেশ চার হাত এক করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দুই পরিবার। সেই মতো এক মাস আগে বিয়ের দিনক্ষণ পাকা হয়।
চলতি মাসের ৪ তারিখ বিয়ের দিন ঠিক হয়। স্থির হয়, হিন্দু মতেই হবে বিয়ে। সেই মতো সব ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু হঠাৎই মাঝখান থেকে বাগড়া দেয় মরণঘাতী করোনা ভাইরাস। দিন ১০-১২ আগে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিতেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ে দুই পরিবারের।
শেষে ঠিক হয়, নির্দিষ্ট দিনেই হবে বিয়ে। কোনো মতে পাত্র ও পাত্রী ভিসা নিয়ে ভারতে চলে আসেন। কিন্তু আটকে পড়ে কনের পরিবার। সেই পরিস্থিতির মধ্যেই মঙ্গলবার চার হাত এক হলো অ্যাঞ্জেল ও পিন্টুর।
মঙ্গলবার পিন্টুর কাঁথি-১ ব্লকের পশ্চিম পারুলিয়ার বাড়িতে হয় বিয়ে। বুধবার ছিল বৌভাত। এঞ্জেল সেজেছেন লাল শাড়ি, চেলি, গয়নায়। আর চীন থেকে নবদম্পতিকে মোবাইলের ভিডিও কলে আশীর্বাদ করলেন এঞ্জেলের পরিজনেরা।
কনে এঞ্জেল বলেন, ‘আমার পরিবার খুশি এবং সুস্থই আছে। তবে ভাইরাসের ভয়ের কারণে তারা আমার বিয়েতে অংশ নিতে আসতে পারেননি।’
বিয়ের পর কি তারা চীনে ফিরে যাবেন, এমন প্রশ্নে এঞ্জেল বলেন, ‘আমরা ফিরে তো যাবই কিন্তু কখন যেতে পারব জানি না। সবকিছু মিটে গেলে আমরা ওখানে গিয়ে রেজিস্ট্রি এবং বাকি সবকিছু শেষ করব।’জিয়াকির স্বামী পিন্টু জানান, চীনেও একটি অনুষ্ঠান হবে বিয়ের পরে।

পূর্বকোণ/এস

The Post Viewed By: 261 People