চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ইরানি হামলায় মস্তিষ্কে আঘাতের শিকার ৫০ সেনা : পেন্টাগন

৩০ জানুয়ারি, ২০২০ | ২:১৬ পূর্বাহ্ণ

ইরানি হামলায় মস্তিষ্কে আঘাতের শিকার ৫০ সেনা : পেন্টাগন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেমানির হত্যার প্রতিশোধে ইরাকে অবস্থিত দুটি বিমান ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ‘মস্তিষ্কে আঘাতজনিত’ সমস্যায় ৫০ মার্কিন সেনা চিকিৎসা নিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন থেকে প্রকাশিত বিবৃতির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

এর আগে ৩ জানুয়ারি ইরাকের বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেমানির হত্যার প্রতিশোধে ইরাকের পশ্চিমের আল-আনবার প্রদেশের আইন আল-আসাদ বিমান ঘাঁটি ও উত্তর ইরাকের ইরবিলের বিমান ঘাঁটিতে মার্কিন অবস্থানে ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে হামলা চালায় ইরান। তাৎক্ষণিকভাবে এ হামলায় কোনো মার্কিন সেনা হতাহত হওয়ার খবর না জানালেও পরে আট সেনা আহত হওয়ার তথ্য জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ২৫ জানুয়ারি (শনিবার) পেন্টাগন ৩৪ সেনাকে মস্তিষ্কে আঘাতের কারণে চিকিৎসা দেওয়ার কথা জানায়।

মঙ্গলবার পেন্টাগনের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল থমাস ক্যাম্পবেলের সই করা বিবৃতিতে জানানো হয়, মস্তিষ্কে আঘাতের কারণে চিকিৎসা নেওয়া ৫০ সেনার মধ্যে ৩১ জনই চিকিৎসা শেষে কাজে যোগ দিয়েছেন। এছাড়া ১৮ সেনাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জার্মানি পাঠানোর কথা বিবৃতিতে জানানো হয়।
এদিকে হামলার পরপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, আহত মার্কিন সেনাদের অবস্থা তেমন একটা গুরুতর নয়। ট্রাম্পের এ মন্তব্যের সমালোচনা করছেন দেশটির সাবেক সেনা সদস্যরা।

রোড আইল্যান্ডের সিনেটর এবং সাবেক মার্কিন সেনা কর্মকর্তা জ্যাক রিড এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানান।
বিবৃতিতে মস্তিষ্কে আঘাতজনিত সমস্যাকে ‘গুরুতর বিষয়’ উল্লেখ করে সিনেটর রিড বলেন, ‘আঘাতের মাত্রাকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যে দৃষ্টিতে (কমিয়ে দেখা) দেখেছেন, তা সম্পূর্ণ ভুল। তিনি হয়তো তাদের অসম্মান করতে চাননি। তবে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মন্তব্য আমাদের সেনা সদস্যদের অপমান করেছে।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 116 People

সম্পর্কিত পোস্ট