চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

ব্রেক্সিটের বাকি আর এক ধাপ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ব্রেক্সিটের বাকি আর এক ধাপ

২৬ জানুয়ারি, ২০২০ | ৪:১৫ পূর্বাহ্ণ

ব্রেক্সিটের বাকি আর এক ধাপ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ব্রেক্সিটের বাকি আর এক ধাপ

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে ব্রিটেনের চার দশকের বেশি সময়ের সম্পর্ক ছিন্ন প্রায় নিশ্চিত। শুক্রবার ইউরোপীয় কমিশন ও ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধানরা ব্রেক্সিট চুক্তিতে সই করেছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার এক ভোটাভুটিতে ইইউ পার্লামেন্টের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্য চুক্তিতে সায় দেন। এখন বাকি আর এক ধাপ। আগামী বুধবার ইইউ পার্লামেন্টের সদস্যরা আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিতে অনুমোদন দিতে পারেন। এই অনুমোদন পাওয়া গেলে ৩১ জানুয়ারি ইইউ ছেড়ে বেরিয়ে যাবে ব্রিটেন। খবর এএফপির।
ব্রিটেনের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডস বুধবার ব্রেক্সিট আইন অনুমোদন করে। পরদিন বৃহস্পতিবার রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ আইনটিতে স্বাক্ষর করেন। ২০১৬ সালে ব্রেক্সিট গণভোটের পর থেকে দেশটিতে যে রাজনৈতিক টানাপোড়েন চলছিল, রানীর স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে তার অবসান ঘটল।

শুক্রবার ব্রেক্সিট চুক্তিতে স্বাক্ষরের পর ইইউ কমিশনের প্রধান উরশুলা ফন দেয়ার লায়েন টুইটে লিখেছেন, তার ও ইইউ কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিশেলের স্বাক্ষরের পর চুক্তিটি ইইউ পার্লামেন্টে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। অপর এক টুইটে চার্লস লিখেছেন, ব্রিটেনের সঙ্গে সম্পর্কের পরিবর্তন ঘটলেও বন্ধুত্বের কোনো ক্ষতি হবে না।
২০১৬ সালে এক গণভোটে ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দেন ব্রিটিশ ভোটাররা। এরপর থেকেই শুরু হয় জটিলতা। পেছাতে থাকে ব্রেক্সিটের সময়সীমা। সবশেষ ৩১ জানুয়ারির মধ্যে ব্রেক্সিট সম্পন্নে একমত হয় ব্রিটেন ও ইইউ। এ সময়ের মধ্যেই ব্রেক্সিট সম্পন্নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে গত বছর বিপুল ভোটে জয়ী হন কনজারভেটিভ নেতা বরিস জনসন। রক্ষণশীল এই নেতার নেতৃত্বে আগামী শুক্রবার ইইউ ছাড়ছে ব্রিটেন।

বিচ্ছেদের পরের পথটা ব্রিটেনের জন্য খুব সহজ হবে না। চলতি বছরের মধ্যে ইইউর সঙ্গে ভবিষ্যৎ সম্পর্ক নিয়ে বোঝাপড়া সারতে হবে জনসনকে। তবে বিশ্লেষকদের মতে, এই প্রক্রিয়া শেষ করতে অন্তত দুই থেকে তিন বছর লেগে যেতে পারে। অন্যান্য দেশের সঙ্গেও নতুন করে বাণিজ্য চুক্তি করতে হবে জনসনকে।
আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই ইইউ’র সঙ্গে নতুন বাণিজ্য ও নিরাপত্তা চুক্তি স্বাক্ষরে একরোখা অবস্থান নিয়েছেন জনসন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 98 People

সম্পর্কিত পোস্ট