চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

কলার থোড় ডায়বেটিস রোগীদের জন্য উপকারী

১৮ জুলাই, ২০২০ | ৩:২৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কলার থোড় ডায়বেটিস রোগীদের জন্য উপকারী

ফলন্ত কলা গাছের কাণ্ডের মজ্জা, যা কলার থোড় হিসেবে পরিচিত। খাবার হিসেবে উপাদেয় আর পুষ্টিগুণে ভরপুর এটি।

স্বাস্থ্যবিষয়ক এক ওয়েবসাইটের দেয়া তথ্যমতে, কলা হজমে উপকারী। কলার মোচায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম, আয়রন, মিনারেলস ও বিভিন্ন ভিটামিন রয়েছে। এটি ডায়বেটিস রোগীদের জন্য বিশেষ উপকারী। কলার থোড় খাবার হজমে সহায়ক। এর শরবত শরীর থেকে বিভিন্ন বিষাক্ত উপাদান দূর করে। নিয়মিত অন্ত্র থেকে মল অপসারণ করতে ও অন্ত্রে প্রয়োজনীয় ভোজ্য-আঁশ সরবরাহের মাধ্যমে হজমেও সাহায্য করে। কলার মোচার শরবতের সঙ্গে এলাচ মিশিয়ে পান করলে তা মুত্রথলিকে আরাম দেয় ও বৃক্কে পাথর জমা রোধ করে। কলার মোচার শরবতে লেবুর রস মিশিয়ে পান করলেও বৃক্কে পাথর হওয়ার ঝুঁকি কমে। মুত্রনালীর প্রদাহজনিত ব্যথা ও অস্বস্তি দূর করতেও এর শরবত উপকারি।

থোড়ে থাকা আঁশ শরীরের কোষে জমে থাকা শর্করা ও চর্বি নিঃসরণ করে। এটি বিপাকক্রিয়া উন্নত করে। এতে ক্যালরির পরিমাণও বেশ কম। ভিটামিন বি সিক্স’য়ে ভরপুর। পটাশিয়াম, লৌহ ও রক্তে হিমোগ্লোবিন বাড়ানোর উপাদান রয়েছে। তাই কোলেস্টেরল ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে বেশ উপকারি। শরীরে এ্যাসিডের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়া শরীরে রক্তের পরিমাণ ঠিক রাখে ও রক্ত পরিষ্কার করে। আয়রনে ভরপুর কলার মোচা রক্তের মূল উপাদান হিমোগ্লোবিনকে শক্তিশালী করে। মোচা শরীরে ইনফেকশন ও ঋতু পরিবর্তনের সময় যে কোনো সংক্রমণের ঝুঁকি কমায়। নিয়মিত কলার মোচা খেলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে। কলার মোচা প্রচুর সলিউবল ও ইনসলিউবল ফাইবার থাকায় হজম ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি ওজন কমায়।
পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 149 People

সম্পর্কিত পোস্ট