চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

জল ও গুটি বসন্ত নিরাময়ে কার্যকর সজনে ডাটার গুণাগুণ

২৫ জানুয়ারি, ২০২০ | ৪:৪০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

জল ও গুটি বসন্ত নিরাময়ে কার্যকর সজনে ডাটার গুণাগুণ

সজনে ডাটা অনেকেরই বেশ প্রিয় একটি সবজি। এটি স্বাস্থ্য সুরক্ষার কাজেও বেশ প্রয়োজনীয়। শুধু সজনের ডাটাই নয়, সজনের পাতাও শাক হিসেবে খাওয়া যায়। সজনে ডাটায় রয়েছে ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স। এতে রয়েছে ফোলেট, ভিটামিন বি-৬, থায়ামিন, রিভোফ্লাভিন, প্যানটোথেনিক এসিড এবং নিয়াসিন। এগুলো শর্করা, প্রোটিন এবং চর্বি হজমে সহায়তা করে। এছাড়াও প্রচুর ক্যালসিয়াম, লৌহ, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, জিংক, সেলেনিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম পাওয়া যায়। সজনে ডাটা দিয়ে অনেক রকম তরকারি রান্না করা যায়। সব থেকে পরিচিত রেসিপি হলো সরিষা আর আলু দিয়ে সজনের ডাটার ঝোল আর ডাল, আলু আর সজনের ডাটার ঝোল। সজনে ডাটায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে যা এন্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। তাই ঠান্ডা জ্বর এবং কাশি দূর করতে সাজনার তরকারি, ডাল বা সুপ বেশ উপকারী।

সজনে ডাটা দেহের কোলেস্টোরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। তাই সজনে ডাটা খাওয়া উচ্চ রক্ত চাপের রোগীদের জন্য বেশ উপকারী। এছাড়া উচ্চ রক্ত চাপের চিকিৎসায় সজনের পাতাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। সজনে হজম সমস্যা সমাধানে ব্যাপক ভাবে কার্যকরী। মানুষের শরীরে চিনির সঠিক মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্য করে সজনে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সজনে খুবই উপকারী সবজি। হাড় শক্ত ও

মজবুত করে। সজনে ডাটায় প্রচুর পরিমাণে আয়রণ, ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন থাকে। তাই এটি সুস্থ এবং শক্তিশালী হাড়ের জন্য অত্যন্ত উপকারী এছাড়াও আমাদের শরীরের রক্ত বিশুদ্ধ করতেও সজনের কোন জুড়ি নেই। সজনে ডাটা তরকারি বা ডাল রান্না করে খেলে জল বসন্ত ও গুটি বসন্তে আক্রান্ত হওয়ার আশংকা অনেকাংশে কমে যায়।
সজনে ডাটার মতো এর পাতারও রয়েছে যথেষ্ট গুণ। সজনে পাতা শাক হিসেবে, ভর্তা করেও খাওয়া যায়। এতে মুখের রুচি আসে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 176 People

সম্পর্কিত পোস্ট