চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৪ অক্টোবর, ২০২০ | ১:৫৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ার বাজারে গত সপ্তাহে দেড় হাজার কোটি টাকা হারালেন বিনিয়োগকারীরা

দেশের দুই শেয়ার বাজারে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সূচকের পতন ঘটলেও লেনদেন তার আগের কার্যদিবসের চেয়ে বেশি ছিল। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দরপতনের কারণে গত সপ্তাহে প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকা হারালেন বিনিয়োগকারীরা। তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমায় এ অর্থ হারালেন তারা।

গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতন হলেও লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় কিছুটা বেশি ছিল। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ২৯ কোটি তিন লাখ ৩৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। তার আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৮৫৫ কোটি ২৫ লাখ ৪৫ হাজার টাকার।
অপরদিকে, চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে। শেষ কার্যদিবসে সূচক কমলেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে।
বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, সপ্তাহের শেষ দিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স দুই দশমিক ৮১ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ কমে চার হাজার ৯১৪ দশমিক শূন্য তিন পয়েন্টে নেমে আসে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক দুই দশমিক ৫৭ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২৩ শতাংশ কমে এক হাজার ১১৪ দশমিক ১৭ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস ৩০ সূচক দুই দশমিক ৬৩ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৫ শতাংশ কমে এক হাজার ৬৯২ দশমিক ৪৩ পয়েন্টে স্থির হয়। এদিন ৩৪ কোটি ৬১ লাখ ৯৩ হাজার ১২২টি শেয়ার দুই লাখ দুই হাজার ৩০০ বার হাতবদল হয়।

এদিন মোট ৩৫২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। যার মধ্যে দর বেড়েছে ১০৬টির এবং কমেছে ১৯২টির। বাকি ৫৪টি কোম্পানির দর অপরিবর্তিত ছিল। তাতে ডিএসইর বাজার মূলধন এক হাজার ৫২৪ কোটি ১৬ লাখ ৭৬ হাজার টাকা কমে তিন লাখ ৯৬ হাজার ৫৭৫ কোটি পাঁচ লাখ ২১ হাজার টাকায় দাঁড়ায়।

এদিকে গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ৪১ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৮৬ শতাংশ। আগের সপ্তাহে সূচকটি কমে ৪৪ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৯১ শতাংশ। তার আগের সপ্তাহে কমে ৭৮ দশমিক ৩৫ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৫৭ শতাংশ। অর্থাৎ টানা দুই সপ্তাহে ১২৩ পয়েন্ট কমার পর ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ৪১ পয়েন্ট বাড়ল। প্রধান মূল্যসূচকের পাশাপাশি গত সপ্তাহে বড়েছে ডিএসইর অপর দুই সূচক। এর মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ২০ পয়েন্ট বা দশমিক ১১ শতাংশ। আগের সপ্তাহে সূচকটি বাড়ে ৪ দশমিক ১৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৮ শতাংশ।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স তিন দশমিক শূন্য সাত পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক শূন্য তিন শতাংশ কমে আট হাজার ৪৩২ দশমিক ৯৫ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই চার দশমিক ৫৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক শূন্য তিন শতাংশ কমে ১৪ হাজার ২৯ দশমিক ৬৮ পয়েন্টে এসে দাঁড়ায়। সিএসইতে ২৬৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৯৪টির, কমেছে ১৩৩টির এবং ৩৬টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ৫১ লাখ ৫০ হাজার ৪৫৪ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২৩ কোটি ৪২ লাখ ১৮ হাজার ৩০৫ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে দুই কোটি ৯ লাখ ৩২ হাজার ১৪৯ টাকা।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 119 People

সম্পর্কিত পোস্ট