চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

এইচএসবিসি ছাঁটাই করবে ৩৫ হাজার কর্মী
এইচএসবিসি ছাঁটাই করবে ৩৫ হাজার কর্মী

১৮ জুন, ২০২০ | ১:৪৬ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

এইচএসবিসি ছাঁটাই করবে ৩৫ হাজার কর্মী

দ্য হংকং এন্ড সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশন (এইচএসবিসি) কর্তৃপক্ষ ৩৫ হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে। মূলত আগামী ২০২২ সালের মধ্যে ব্যাংক পুনর্গঠনের জন্য ৪৫০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় কমানোর লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এইচএসবিসির নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নোয়েল কুইন বলেছেন, বিশ্বজুড়ে এইচএসবিসির কর্মীসংখ্যা বর্তমানে ২ লাখ ৩৫ হাজার। এইচএসবিসিতে ৩ লাখের বেশি কর্মী নিয়োগ করা হয়েছিল যা আগামী ৩ বছরের মধ্যে ২ লাখে নামিয়ে আনা হবে।

এইচএসবিসি জানায়, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই তারা কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেয়। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে সেটি স্থগিত রেখে দেয়। এদিকে, এপ্রিল মাসেই কর্মী ছাঁটাই করার সিদ্ধান্ত নিলেও করোনার মধ্যে কর্মীরা নতুন করে কাজ খুঁজে পাবে না। আর সেই বিপর্যয়ে কর্মীদের ফেলতে চায় না প্রতিষ্ঠানটি।

বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ব্যাংকটি রাজনৈতিকভাবেও কিছু চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এইচএসবিসির সমালোচনা করেছেন। হংকংয়ের ওপর চীনের নতুন নিরাপত্তা আইন চাপিয়ে দেয়াকে সমর্থন করে রাজনৈতিক নিশানায় পড়েছে ব্যাংকটি।

এদিকে, অসময়ে কর্মী ছাঁটাইয়ের জন্য এইচএসবিসির সমালোচনাও হচ্ছে। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন এ ব্যাপারে। ট্রেড ইউনিয়ন ইউনিটের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও এ ব্যাপারে মুখ খুলেছেন।

ট্রেড ইউনিয়নের কর্মকর্তা ডমিনিক হুক বলেন, ‘এইসএসবিসি এখন কেন কর্মী ছাঁটাই করছে? বর্তমানে এইসএসবিসির বহু কর্মী নানাভাবে ছাড় দিচ্ছে। তারা বাড়ি থেকে কাজ করছে, ঝুঁকি নিয়ে অফিস করছে, গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে।’

এইচএসবিসির যেকোনো কর্মীকে চাকরিচ্যুত করার বিরোধিতা ট্রেড ইউনিয়ন করবে এবং কর্মীদের চাকরি সুরক্ষিত কীভাবে হয় তা নিশ্চিত করার জন্য সবার কথা শোনা হবে বলেও জানিয়েছেন ডমিনিক হুক।

অন্যদিকে, ব্যাংকটি জানিয়েছে, মূলত ইউরোপে বিনিয়োগ আর বাণিজ্যিক কার্যক্রম প্রত্যাশিত না হওয়ায় ৭৩০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতির মুখে পড়েছে তারা। তবে ৩৫ হাজার কর্মীকে ছাঁটাইয়ের ঘটনাটি আশঙ্কার তুলনায় বেশি, যা ব্যাংকটির মোট কর্মীর ১৫ শতাংশ।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 246 People

সম্পর্কিত পোস্ট