চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধীদের সেবাদানে সাইন-লাইন ডিজিটাল কেয়ার চালু

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১:৩৭ পূর্বাহ্ণ

গ্রামীণফোনের অনন্য উদ্যোগ

শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধীদের সেবাদানে সাইন-লাইন ডিজিটাল কেয়ার চালু

নিজের ভাষায় কথা বলতে আমরা সবাই চাই। যোগাযোগ প্রযুক্তির সুবিধা ও ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তি নানাভাবেই সমাজের নানাস্তরের মানুষকে সহায়তা করছে। আমাদের চারপাশে অনেক মানুষ রয়েছেন যারা কথা শুনতে ও বলতে পারেন না। তাদের সাথে যোগাযোগে সবাইকে ইশারা ভাষা শিখতে উৎসাহিত করতে ‘কথাগুলো হারিয়ে না যাক শব্দের অভাবে’ প্রতিপাদ্যে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে গ্রামীণফোন। এ প্রচেষ্টার ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠানটি গতকাল রাজধানীর দ্য ওয়েস্টিন ঢাকা হোটেলে সাইন-লাইন ডিজিটাল কেয়ার উদ্বোধন করে। শ্রবণ ও বাকপ্রতিবন্ধীদের জন্য এ ডিজিটাল কেয়ারে সেবাও প্রদান করবেন শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা। এ উদ্যোগের মাধ্যমে গ্রামীণফোন, এর ওয়েবসাইট ও্ সেলফ সার্ভিস ডিজিটাল কেয়ার অ্যাপ মাইজিপি’তে ইশারা ভাষা ভিত্তিক গ্রাহকসেবা চালু করেছে। এছাড়াও, ‘কথাগুলো হারিয়ে না যাক শব্দের অভাবে’ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ইশারা ভাষা বিশেষজ্ঞ আরাফাত সুলতানা লতার প্রশিক্ষণে গ্রামীণফোনের ইউটিউব চ্যানেলে ইশারা ভাষার ভিডিও টিউটোরিয়াল আপলোড করা হয়েছে। যা আগ্রহীদের ইশারা ভাষা শিখতে প্রাথমিক সহায়তা করবে এবং তাদেরকে সুযোগ করে দিবে কথা বলতে পারেন না এবং কথা শুনতে পান না এমন প্রিয়জনদের সাথে যোগাযোগ করার। শ্রবণ ও বাকপ্রতিবন্ধী মানুষের যোগাযোগের মাধ্যম ইশারা ভাষা অনেকের অজানা।

গ্রামীণফোনের এ উদ্যোগ সহায়তা করবে আমাদের মূল ভাষার মতো এ ভাষার গুরুত্বকে সমাজে সবার সামনে নিয়ে আসতে।
প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বলেন, ‘সমাজের প্রতিটি মানুষের কাছে যোগাযোগ প্রযুক্তি অন্তর্ভুক্তির সুবিধা পৌঁছানো উচিৎ।
গ্রামীণফোন এখন ৭৬.৫ মিলিয়ন গ্রাহকের পরিবার এবং আমাদের দায়িত্ব হলো আমাদের নেটওয়ার্কে সবাইকে সমভাবে সেবা প্রদান করা। মাই জিপি-তে এবং গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটে ইশারা ভাষা ভিত্তিক সেবা ‘সাইন-লাইন’ অন্তর্ভুক্তি লাখো মানুষকে সেবা পেতে সহায়তা করবে।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 185 People

সম্পর্কিত পোস্ট