চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

করোনাভাইরাস: আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ প্রবাসীদের

১৬ মার্চ, ২০২০ | ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

সাদেক রিপন, কুয়েত প্রতিনিধি

করোনাভাইরাস: আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ প্রবাসীদের

কুয়েত থেকে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিন নতুন নতুন দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। বিশেষ করে চীনসহ আশপাশের দেশগুলো আক্রান্তের খবর ও আতংকের সৃষ্টি করেছে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে কুয়েত সরকার সব ধরনের অনুষ্ঠান, সভা সেমিনার সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে।

কুয়েতে সরকার তাদের দেশের জনগণ ও বিভিন্ন দেশের প্রবাসীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে বিমানবন্দর ও গুরুত্বপূর্ণ স্থান সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলোতে করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে সর্বক্ষেত্রে কড়া নজরদারি এবং নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর ও দুতালয় প্রধান মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান করোনা ভাইরাস এটি নতুন সক্রামণ ও ছোঁয়াচে রোগ এতে প্রবাসীদের আতংকিত না হয়ে সতেচনা হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, জরুরি কাজ ব্যতীত লোকসমাগম এড়িয়ে চলা, প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে বের না হওয়া আর বের হলে মাক্স ব্যবহার করা।

প্রবাসীদের যতদূর সম্ভব এই সময়টাতে দেশে ও বিদেশে যাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। কুয়েতে সরকারের দিক নিদের্শনা সমূহ মেনে চলা। করোনাভাইরাসের কারণে ফ্লাইট বন্ধ হওয়াতে ছুটিতে থাকা যে সকল প্রবাসীদের আকামা মেয়াদউত্তীর্ণ হয়ে গেছে তারা নিজ নিজ কোম্পানির সঙ্গে এবং যারা খাদেম আকামা তারা নিজের কফিলের সাথে যোগাযোগ করে কুয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন।প্রবাসীরা ফেসবুক, ইউটিউবসহ সোস্যাল মিডিয়াগুলোতে ভুল সংবাদ তথ্য ও ছবি পোষ্ট ও শেয়ার করা থেকে বিরত থাকবেন মূল কথা হল আতংক না ছড়িয়ে প্রবাসীদের কে সর্তক ও সচেতন হতে হবে।

কোন প্রবাসী বা করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত খবরাদি আদান প্রদানের জন্য দূতাবাসের হটলাইন ৫৬৬৫৩০৯৭,৯৪৪২৯৭৪৪, ৯৯৫৩৬৭৪৩ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। মাসিক আল হুদা সম্পাদক ও কুয়েত প্রবাসী খতিব মাওলানা মামুনুর রশীদ বলেন, করোনা ভাইরাসে নির্দিষ্ট কোন চিকিৎসা নেই। প্রতিষেধক আবিষ্কারের চেষ্টা করছে বিভিন্ন দেশ। প্রতিরোধ ও সতর্কতা অবলম্বন জরুরি এবং এর পাশাপাশি যে আমলগুলো করবেন আল্লাহর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করা, তাঁর উপর আস্থা রাখা, আল্লাহর নিকট প্রত্যেক জিনিসেই নির্ধারিত রয়েছে। তিনি যা চান করেন, অসুস্থ হলে তিনিই আরোগ্য দান করেন।

করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকতে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের পরামর্শের পাশাপাশি বিশেষ কিছু আমল চালু রাখতে হবে। আল্লাহর রাসূল (সা.) রোগ থেকে বাঁচার জন্য দুআ করতেন; আল্লাহুম্মা ইন্নী আঊযুবিকা মিনাল বারাসি, ওয়াল জুনূনি, ওয়াল জুযামি ওয়ামিন সাইয়্যিল আসকাম। হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই শ্বেত, উন্মাদনা, কুষ্ঠ এবং সমস্ত দুরারোগ্য ব্যাধি হতে। (আবু দাউদ: ১৫৫৪, নাসাঈ: ৫৪৯৩, আলবানী হাদীসটি সহীহ বলেছেন) রাসূল (সা.) বলেছেন যে ব্যক্তি সন্ধ্যায় তিনবার বলবে: “বিস্ মিল্লা-হিল্লাযী লা ইয়াদ্বুররু মা‘আ ইস্ মিহী শাইউন ফিল্ আরদ্বি ওয়ালা ফিস্ সামা-ই, ওয়াহুয়াস্ সামী‘উল ‘আলীম’’ সকাল হওয়া পর্যন্ত তার প্রতি কোনো হঠাৎ বিপদ আসবে না। অর যে তা সকালে তিনবার বলবে সন্ধ্যা পর্যন্ত তার উপর কোনো হঠাৎ বিপদ আসবে না। (আবু দাউদ: ৫০৮৮) হাদীসটি সহীহ মহান আল্লাহ আমাদের সকলকে এমন মরণ ব্যাধি দূরারোগ্য থেকে হিফাযত করুন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/এম

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 317 People

সম্পর্কিত পোস্ট