চট্টগ্রাম বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

চবিতে অনলাইন ক্লাস শুরু: প্রথমদিনে উপস্থিত ৬০-৭০ শতাংশ
চবিতে অনলাইন ক্লাস শুরু প্রথমদিনে উপস্থিত ৬০-৭০ শতাংশ

৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৮:৫৩ অপরাহ্ণ

রায়হান উদ্দিন

চবিতে অনলাইন ক্লাস শুরু: প্রথমদিনে উপস্থিত ৬০-৭০ শতাংশ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) চালু হয়েছে অনলাইন ক্লাস। শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গে সংযুক্ত রাখতে এ উপায় বেছে নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) প্রথম দিনে ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি থাকে অনলাইন ক্লাসে। তবে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোতে এ উপস্থিতির হার বেশি। বিশ্ববিদ্যালয়ের অনন্ত ২০টি বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে খোঁজ নিয়ে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কলা অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোতে ৫৫-৬০ শতাংশ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোতে ৬০-৬৫ শতাংশ, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের বিভাগগুলোতে ৬০-৭০ শতাংশ। তবে এর বিপরীত বিজ্ঞান অনুষদের বিভাগগুলোতে ৮৫ শতাংশেরও বেশি শিক্ষার্থী অনলাইন ক্লাসে যোগ দেয়। বর্তমানে জুম এপ ব্যবহার করে বিভাগগুলো অনলাইন ক্লাস কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, যারা প্রত্যন্ত বা গ্রাম এলাকায় অবস্থান করছেন তাদের অনেকের বাড়ি থেকে বেশ দূরে গিয়ে সংযোগ পেতে হয়। আর গ্রামীণ মোবাইল নেটওয়ার্ক দুর্বল থাকায় এপগুলো যথাযথভাবে চালাতে পারছেন না তারা। এছাড়া এপগুলোতে ঘণ্টায় ৫০০ থেকে ৬০০ মেগাবাইট ডাটা খরচ হয়ে থাকে, এর ব্যয়ভার বহনের মতো যথেষ্ট আর্থিক সক্ষমতাও অনেকের নেই।

বিজ্ঞান অনুষদের কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শিক্ষকরা অনলাইনে যেসব ক্লাস নিবেন পরবর্তীতে একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর এসব ক্লাস সংক্ষিপ্তাকারে নিয়ে শেষ করবেন। আর শিক্ষকের পাঠদান ছাড়া এসব কোর্স বোঝা একেবারেই অসম্ভব। ফলে শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাসে উপস্থিতির হার অনেকটাই বেশি।

কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মহীবুল আজিজ বলেন, ‘আজ থেকে ফরমাল অনলাইন ক্লাস শুরু করছি। খবর পাচ্ছি প্রায় সব বিভাগের পুরোদমে ক্লাস নেয়া শুরু করছে। প্রায় ৬০-৭০ পার্সেন্ট শিক্ষার্থী উপস্থিতি ছিল। তবে যাদের ডাটা কম তাদের আমরা দুটো বিকল্প দিয়েছি। একটা লেকচার শিট শিক্ষার্থীদের মেইলে পাঠিয়ে দিয়েছি। তারপর ৪০ মিনিটের একটা রেকর্ডিং দিয়েছি’।

বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও পদার্থবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নাসিম হাসান বলেন, ‘বিজ্ঞান অনুষদ থেকে প্রায় সব বিভাগ অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করছে। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার প্রায় ৯০ পার্সেন্ট। যেসব শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারেননি। তাদের সমস্যাগুলো বের করে বিকল্প চিন্তাভাবনা করছি’।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এস এম মনিরুল হাসান পূর্বকোণকে বলেন, ‘জুম অ্যাপসের মাধ্যমে অনলাইন ক্লাস শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীরা অনলাইন ক্লাসে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করছে বলে খবর পেয়েছি। আপাতত ক্লাস এটেডেন্স ও পরীক্ষা নেওয়া হবে না। তবে পরিস্থিতি ও শিক্ষার্থীদের আগ্রহ থাকলে পরীক্ষার বিষয়ে আলোচনা করার কথাও জানান তিনি’।

 

 

 

 

পূর্বকোণ/পি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 92 People

সম্পর্কিত পোস্ট