চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

শেখ হাসিনাকে হত্যার প্রথম অপচেষ্টা শুরু

২৫ জানুয়ারি, ২০২০ | ৩:২৬ পূর্বাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস পালনে বক্তারা

শেখ হাসিনাকে হত্যার প্রথম অপচেষ্টা শুরু

চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবসে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার প্রথম অপচেষ্টা শুরু হয়। পুলিশের গুলিতে ২৪ জন নিরীহ প্রাণ ঝরে যায়। বিশ্ব ইতিহাসে এটি এক কলঙ্কিত দিন হিসেবে লিপিবদ্ধ হয়ে থাকবে।
কোতোয়ালী আওয়ামী লীগ : ২৪ জানুয়ারি গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৮৮ সালের ২৪ জানুয়ারি সামরিক স্বৈরশাসকের গণহত্যার মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রথম হত্যা অপচেষ্টা শুরু হয়। তার পর থেকে আরো দু ডজন বারের মত শেখ হাসিনাকে হত্যা করার নীলনক্সা ব্যর্থ হয়। এ নীলনক্সা যারা করেছিল তারা একাত্তরের পরাজিত শক্তির প্রেতাত্মা। তাদের বিরুদ্ধে তীব্র গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন, কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফিরোজ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর, মশিউর রহমান রোকন প্রমুখ।
চকবাজার থানা আওয়ামী লীগ : ২৪ জানুয়ারি গণহত্যা দিবস উপলক্ষে শহীদবেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক, সহ-সভাপতি ফারুক খালেক চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, অমর কান্তি দত্ত, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এ কে এম আনিসুজ্জামান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক রতন ভট্টাচার্য, কার্যকরী কমিটির সদস্য নাজমুল হক বাচ্চু, এড মোস্তফা নাজিম পাশা, খোরশেদ আলম জনি, পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামী নেতা এম এ হান্নান, মহানগর যুবলীগের সদস্য মোস্তাক আহমেদ টিপু প্রমুখ।
বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ : আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের রক্ষায় কালো আইন ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে খলনায়ক হিসেবে ঘৃণিত ও নিন্দিত হয়েছেন। তিনি গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ২৪ জানুয়ারি চট্টগ্রাম গণহত্যায় নিহত শহীদ স্মরণে ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। মুখ্য আলোচক ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম উদ্দিন চৌধুরী। চসিক কাউন্সিলর এইচ এম সোহেলের সভাপতিত্বে খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শফর আলী, নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক, সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নুরুল আমিন, চসিক কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক সায়রা বানু রশ্মি, নগর যুবলীগের সদস্য সুমন দেবনাথ, ওয়াহিদুল আলম শিমুল, আকবর শাহ থানা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সুফিয়ান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ইয়াছির আরাফাত, আওয়ামী লীগ নেতা বাবুল হক সওদাগর, মুজিবুর রহমান, প্রমুখ।
মহানগর শ্রমিকলীগ : সংগঠনের সভাপতি বখতেয়ার উদ্দিন খান শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অপর্ণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জনতা ব্যাংক সিবিএ এর সভাপতি আবু তাহের জিহাদী, পূর্বালী ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক কফিল উদ্দিন, পদ্মা ওয়েল কোং শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক জাফর ইকবাল, মহানগর থানা শ্রমিক লীগের সদস্য ফখরুল ইসলাম, আকবর শাহ থানা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পদাক রবিউল ইসলাম জাহাঙ্গীর, চকবাজার থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি দেবাশীষ চৌধুরী দেবু, কার্যকরী সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব দে, বায়েজিদ থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি দিদারুল আলম, চান্দগাঁও থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. আজগর, সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন, খুলশী থানা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম, কার্যকরী সভাপতি কবির হোসেন, ডবলমুরিং থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. হারুন, সাধারণ সম্পাদক ফাতাউর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. দেলোয়ার, মিমি সুপার মার্কেটের দোকান কর্মচারী সমিতির সভাপতি নূর ইয়াছিন চৌধুরী, দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. হারুণ, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
৪২ নং নাসিরাবাদ ওয়ার্ড যুবলীগ ও ছাত্রলীগ : চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবসে কোর্ট হিল চত্বরে নির্মিত স্মৃতিসৌধে নগরীর ৪২ নং নাসিরাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। ও দীর্ঘ ৩২ বছর পর গণহত্যায় দোষীদের বিচারের ঘোষিত রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানান তারা।
উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, মহানগর যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ জাবেদ হোসেন খাঁন, ৪২ নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ হানিফ মাহমুদ, মোহাম্মদ কামাল, মোহাম্মদ রবিউল, ইঞ্জিনিয়ার জাবেদ হোসেন রাজু, ঝন্টু দাশ, ওয়ার্ড ছাত্রলীগের আহবায়ক তানভীন হাসান, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ তানভীর, মেহেদী হাসান জয়, আশিকুল ইসলাম শিহাব, পিঞ্জয় সরকার, আবু বক্কর সিদ্দিকী, মোহাম্মদ রাকিব হোসেন, তাজউদ্দিনসহ প্রমুখ ।
বোধন : বোধন আবৃত্তি পরিষদ চট্টগ্রাম এর আয়োজনে গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস’ স্মরণে কোর্ট বিল্ডিং শহীদ স্তম্ভ প্রাঙ্গণে আলোচনা ও আবৃত্তি অনুষ্ঠান হয়। শহীদ স্তম্ভে পূষ্পার্ঘ্য অর্পণ, প্রদীপ প্রজ্জ্বালন দিয়ে আয়োজনের শুরু হয়। ১৯৮৮ সালের ২৪ জানুয়ারি সংঘটিত নৃশংস হত্যাকান্ডের দুঃসহ স্মৃতিকথা, সাহসিক আন্দোলনের কথা তুলে ধরেন বোধনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সম্মিলিত আবৃত্তিজোটের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী অঞ্চল চৌধুরী। আর সেই প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বোধনের পক্ষ থেকে প্রশান্ত চক্রবর্ত্তী, পারভেজ চৌধুরী এবং আমি প্রতিবাদী আবৃত্তি পরিবেশন করি এই কোর্টবিল্ডিং প্রাঙ্গণে। চট্টগ্রাম থিয়েটারের সভাপতি নাট্যজন এডভোকেট দীপক চৌধুরী বলেন, সেদিন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মৃতদেহ বলুয়ার দীঘি শ্মসানে পোড়ানো হয়। বক্তব্য শেষে তিনি “চট্টগ্রাম গনহত্যা দিবস” নাটকের অংশবিশেষ পরিবেশন করেন।
অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বোধনের সহসভাপতি এডভোকেট নারায়ণ প্রসাদ বিশ্বাস। একক আবৃত্তি করেন, আবৃত্তি শিল্পী সেহেলী হাসনাত, তূর্ণা দাম,জাভেদ হোসেন,তারমিন পুষ্পা,প্রজ্ঞা পারমিতা, মৃত্তিকা চক্রবর্তী, অসীম দাশ, চিন্ময় মিত্র, সৌম্য সরকার,ওয়াসিজা নাইরা চৌধুরী, মাসতুরা মেহেরীন স্নেহা,প্রণব চৌধুরী, সন্দীপন সেন একা।অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আবৃত্তি শিল্পী মাইনুল আজম চৌধুরী।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 130 People

সম্পর্কিত পোস্ট