চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে নতুন ভোটার দুই লাখ ৮৩ হাজার ৮৩৪

২১ জানুয়ারি, ২০২০ | ৫:১৫ পূর্বাহ্ণ

মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন

চট্টগ্রামে নতুন ভোটার দুই লাখ ৮৩ হাজার ৮৩৪

খসড়া তালিকা নগরীর ৪১ ওয়ার্ডে নতুন ভোটার ৮৫ হাজার ৮৪ জন। আগামী চসিক নির্বাচনে ভোট দেবেন নতুন ভোটাররা।

ভোটার তালিকা হালনাগাদে চট্টগ্রামে নতুন ভোটার হয়েছেন দুই লাখ ৮৩ হাজার ৮৩৪ জন। এরমধ্যে সিটি কর্পোরেশনের ৪১ ওয়ার্ডে নতুন ভোটার সংখ্যা প্রায় ৮৫ হাজার। আগামী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন নতুন ভোটাররা। চট্টগ্রামে বর্তমান ভোটার সংখ্যা ৫৬ লাখ ৩৮ হাজার ১১৪ ভোট।

খসড়া হালনাগাদ ভোটার তালিকায় দেশে বর্তমান ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৯৬ লাখ ৬ হাজার ১৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৫ কোটি ৫৩ লাখ ২৫ হাজার ২৯২ জন। নারী ভোটার ৫ কোটি ৪২ লাখ ৮০ হাজার ৫৪২ জন। ৩৫৩ জন হিজড়া রয়েছে।
গতকাল সোমবার বিকেলে সারাদেশের ভোটার তালিকা হালনাগাদ-২০১৯ এর খসড়া তালিকা প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ১০ কোটি ৪২ লাখ ৪০ হাজার ৮২ জন। হালনাগাদে ৬৭ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪১ জন নতুন ভোটার যোগ হয়েছে। এর মধ্যে মৃত ভোটার বাদ পড়েছে ১৩ লাখ ৯২ হাজার ২৩৬ জন।

চট্টগ্রাম জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বলেন, ‘নগর ও গ্রামের ২১ থানায় নতুন ভোটার হয়েছেন দুই লাখ ৮৩ হাজার ৮৩৪ জন। এছাড়াও ১৬ ও ১৭ বছর বয়সী নাগরিকদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার পর তারা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবেন।’
নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকার পাঁচলাইশে (১, ২, ৩, ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ড) নতুন ভোটার হচ্ছেন ১৭ হাজার ৭৫৪ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ৪৪ হাজার ১৪৩ ভোট। চান্দগাঁও থানায় (৪, ৫, ৬, ১৭, ১৮ ও ১৯ নং ওয়ার্ড) নতুন ভোটার হয়েছেন ১১ হাজার ৪৭৬ জন। বর্তমান ভোটার ৩ লাখ ২৬ হাজার ৬১৫ ভোট। কোতোয়ালীতে (১৫, ১৬, ২০, ২১, ২২, ৩১, ৩২, ৩৩, ৩৪ ও ৩৫ নং ওয়ার্ড) ৯ হাজার ৯৬৭ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৩৯ হাজার ৭৬৬ ভোট। পাহাড়তলীতে (৯, ১০, ১১, ১২ ও ২৬ নং ওয়ার্ড ) নতুন ভোটার ১১ হাজার ৯৫৩ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৫২ হাজার ৭১৫ ভোট। ডবলমুরিংয়ে (১৩, ১৪, ২৩, ২৪, ২৫, ২৭, ২৮, ২৯ ও ৩০ নং ওয়ার্ড) নতুন ভোটার ১৫ হাজার ৮৫৭ জন। বর্তমান ভোটার ৪ লাখ ৭ হাজার ৭১৬ ভোট। বন্দরে (৩৬, ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০ ও ৪১নং ওয়ার্ড) নতুন ভোটার ১৮ হাজার ৭৭ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ৫৫ হাজার ৮৫৫ ভোট। নগরীর ৪১ ওয়ার্ডে মোট ভোটার ৮৫ হাজার ৮৪ জন। আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নতুন ভোটাররা ভোট প্রয়োগ করতে পারবেন।

এছাড়াও সন্দ্বীপ উপজেলায় নতুন ভোটার ১২ হাজার ৪৯৩ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ২ হাজার ৬৯৫ ভোট। ফটিকছড়ি উপজেলায় ১৯ হাজার ২১৬ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ৭৬ হাজার ৫৮৬ ভোট। হাটহাজারী উপজেলায় ১৭ হাজার ৫৯০ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ৮ হাজার ৪৭ ভোট। রাউজান উপজেলায় ১৭ হাজার ৮৪৩ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৭০ হাজার ৮৮৪ ভোট। রাঙ্গুনিয়া উজেলায় ১১ হাজার ৬৩ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৫৩ হাজার ২৩৬ ভোট। বোয়ালখালী উপজেলায় ১৩ হাজার ২৭০ জন। বর্তমান ভোটার এক লাখ ৮০ হাজার ২৬৫ ভোট। পটিয়া উপজেলায় ১৭ হাজার ৮২৩ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৮৬ হাজার ৬৬ ভোট। সাতকানিয়া উপজেলায় ১৬ হাজার ৬৭০ জন। বর্তমান ভোটার ২ লাখ ৮৩ হাজার ৬৪৯ ভোট। বাঁশখালী উপজেলায় ১৬ হাজার ২০৩ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ৩ হাজার ১২৯ ভোট। চন্দনাইশ উপজেলায় ৬ হাজার ৭০৬ জন। বর্তমান ভোটার এক লাখ ৬৩ হাজার ২০৫ ভোট। লোহাগাড়া উপজেলায় সাত হাজার জন। বর্তমান ভোটার এক লাখ ৯০ হাজার ৪৭৮ ভোট। মিরসরাই উপজেলায় ১৮ হাজার ৩০৩ জন। বর্তমান ভোটার তিন লাখ ১৫ হাজার ৪২ ভোট। সীতাকু- উপজেলায় ১০ হাজার ২৭৮ জন। বর্তমান ভোটার দুই লাখ ৯১ হাজার ৫৫৮ ভোট। কর্ণফুলী উপজেলায় ৫ হাজার ৯৯১ জন। বর্তমান ভোটার এক লাখ ১১ হাজার ৭৮১ ভোট। আনোয়ারা উপজেলায় ৯ হাজার ৩০১ জন নতুন ভোটার হয়েছেন। বর্তমান ভোটার এক লাখ ৯৮ হাজার ৬৮৩ ভোট।

এই খসড়া তালিকা ইউনিয়ন পরিষদ, থানা-উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়সহ সংশ্লিষ্ট সব স্থানে সংশোধনের জন্য প্রদর্শন করা হবে। সংশোধনের জন্য আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। আবেদন নিষ্পত্তি করা হবে ১২ ফেব্রুয়ারি। এরপর ১ মার্চ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে।
গত বছরের ২৩ এপ্রিল চট্টগ্রামে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হয়। হালনাগাদে নিবন্ধন হয়েছে তিন লাখ ৯৬ হাজার ৫৮৪ জন। ৫০ হাজার ৯৬ জন মৃত ভোটার কর্তন করা হয়।

The Post Viewed By: 161 People

সম্পর্কিত পোস্ট