চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পোশাক শিল্পের উন্নয়নে কাজ করবে বন্ড কমিশনারেট ও বিজিএমইএ

৯ জানুয়ারি, ২০২০ | ৫:০১ পূর্বাহ্ণ

বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের সাথে সাক্ষাতে মাহাবুবুজ্জামান

পোশাক শিল্পের উন্নয়নে কাজ করবে বন্ড কমিশনারেট ও বিজিএমইএ

নব-নিযুক্ত কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট চট্টগ্রামের কমিশনার মোহাম্মদ মাহাবুবুজ্জামান বলেছেন, জাতীয় অর্থনীতি ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ ব্যাপক কর্মসংস্থানে পোশাক শিল্পের অবদান অনস্বীকার্য। দেশীয় শিল্প হিসাবে পোশাক শিল্পে বর্তমান মন্দাবস্থা উত্তরণে বন্ড কমিশনারেট ও বিজিএমইএ ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে এবং আমদানিকৃত পণ্য চালানে এইচ এস কোড সংক্রান্ত জটিলতা সৃষ্টি হলে বন্ড লাইসেন্সে এইচ এস কোড সংযোজন একই কর্মদিবসে অনুমোদন প্রদান করা হবে। গতকাল বুধবার বিজিএমইএ’র নেতৃবৃন্দ তাঁর সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হলে তিনি এসব কথা বলেন। মতবিনিময়কালে বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম বলেছেন, বাংলাদেশের পোশাক শিল্প বর্তমানে কঠিন সময় অতিক্রম করছে। আন্তর্জাতিক বাজারে অব্যাহতভাবে পণ্যের দর পতন, বিদেশি ক্রেতার পরিদর্শন সংস্থা একর্ড আই এলায়েন্সের সংস্কার কর্মসূচি প্রতিপালন, সর্বশেষ শ্রমিকদের মজুরি ৫১% বৃদ্ধিসহ নানাবিধ অবকাঠামোগত সমস্যায় ব্যবসা পরিচালনা ব্যয় বেড়েছে প্রায় ৩০%। এমতাবস্থায় ব্যবসা ধরে রাখার স্বার্থে, বর্তমানে প্রায় ৪০% রপ্তানিকারক

উৎপাদন ব্যয়ের নিচে রপ্তানি আদেশ নিচ্ছে। প্রায় ৮৭% বিদেশি ক্রেতা পণ্য মূল্য বাড়ায়নি। উৎপাদন ব্যয় কমে প্রায় ৫০% কারখানা পণ্য বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে বিগত অর্থ বছরের তুলনায় বর্তমান অর্থ বছরের প্রথম ৬ মাসে রপ্তানিতে নেতিবাচক প্রবৃদ্ধি হয়েছে (-)৬.২১%। চট্টগ্রামে বন্দর এবং কাস্টমস্ সুবিধায় তুলনামূলকভাবে খরচ কম হলেও অন্যান্য সমস্যার কারণে চট্টগ্রামের পোশাক শিল্প বর্তমানে খুবই নাজুক অবস্থায় রয়েছে। বর্তমানে মিরসরাই ও আনোয়ারায় অর্থনৈতিক অঞ্চল, কর্ণফুলী টানেলসহ বর্তমান সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকা-ে ধারাবাহিকতায় বিদেশি বিনিয়োগসহ নতুন নতুন শিল্প কারখানা গড়ে উঠবে। এক্ষেত্রে বন্ড কমিশনারেট কর্তৃক কার্যক্রম সহজীকরণপূর্বক বিনিয়োগ ও রপ্তানি বৃদ্ধিকল্পে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের উপরোক্ত বক্তব্যের প্রেক্ষিতে কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট কমিশনার মোহাম্মদ মাহাবুবুজ্জামান পারস্পরিক আলোচনা ও সহযোগিতার ভিত্তিতে বিরাজমান সমস্যাসমূহ দ্রুত সমাধান করা হবে মর্মে নেতৃবৃন্দকে আশ্বস্ত করেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি এ.এম. চৌধুরী সেলিম, পরিচালকবৃন্দ এ.এম. মাহবুব চৌধুরী, অঞ্জন শেখর দাশ, প্রাক্তন প্রথম সহ-সভাপতিবৃন্দ নাসির উদ্দিন চৌধুরী, মঈন উদ্দিন আহমেদ মিন্টু, কাস্টম বিষয়ক স্থায়ী কমিটি চেয়ারম্যান এম ডি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী। কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের পক্ষে অতি. কমিশনার ম. শফিউজ্জামান ও সহকারী কমিশনার সন্তোষ সরেণ।
সভায় উপস্থিত ছিলেন পরিচালকবৃন্দ মোহাম্মদ মুসা, খন্দকার বেলায়েত হোসেন, মোহাম্মদ আতিক, এনামুল আজিজ চৌধুরী এবং প্রাক্তন পরিচালকবৃন্দ লিয়াকত আলী চৌধুরী, কাজী মাহাবুব উদ্দিন জুয়েল, কাস্টম বিষয়ক স্থায়ী কমিটির কো-চেয়ারম্যান আবদুল আলীম আরিফ, মাহফুজুর রহমান, কমিটির সদস্য মো. হান্নান, ওয়াদুদ মো. চৌধুরী প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 106 People

সম্পর্কিত পোস্ট