চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২০

ডাকঘর আধুনিকায়ন প্রসঙ্গে

৯ জানুয়ারি, ২০২০ | ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ

ডাকঘর আধুনিকায়ন প্রসঙ্গে

মনের একান্ত ভাবাবেগ সুন্দর ও নিখুঁতভাবে প্রকাশ করার জন্য চিঠি অতুলনীয়। চিঠিপত্র যোগাযোগের জন্যও একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। কিন্তু আমাদের বর্তমান প্রজন্মের চিঠিপত্র লেখার আগ্রহ নেই বললেই চলে। প্রযুুক্তিগত কল্যাণ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর সহজলভ্যতার কারণে চিঠিপত্র আজ অনাদৃত ও অবহেলিত। চিঠিপত্র আদান-প্রদানের বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান হলো ডাকঘর। প্রাচীনকালে রাজারা চিঠিপত্র বহনের জন্য পোষা কবুতর ব্যবহার করতেন। আধুনিক সমাজে চিঠিপত্র আদান-প্রদানে ডাকপিয়নের কর্তব্যনিষ্ঠা প্রশংসনীয়। তাঁদের নিয়ে সুন্দর গানও লেখা হয়েছে, রচিত হয়েছে অনেক সাহিত্যও। তা ছাড়া, ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক ও মানি অর্ডার সেবার জন্যও একটি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান। ডাকটিকিট সংগ্রহ করা একসময় অনেক মানুষের শখও ছিল। সংগৃহীত ডাকটিকিটের প্রদর্শনীও হতো তখন। ডাকঘর আমাদের ঐতিহ্য। এ প্রতিষ্ঠানকে আধুনিকায়ন করা ও এর অস্তিত্ব ধরে রাখা একান্ত জরুরি। ইতিমধ্যে সে কাজ শুরুও হয়েছে, সেটাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

জয়নাল আবেদীন
আনোয়ারা, চট্টগ্রাম।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 90 People

সম্পর্কিত পোস্ট