চট্টগ্রাম শনিবার, ০৪ জুলাই, ২০২০

সর্বশেষ:

বেতার বার্তার সাহায্য নিচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:৩৮ পূর্বাহ্ণ

আল-আমিন সিকদার

বেতার বার্তার সাহায্য নিচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ

৫ বছর পর পুনরুজীবিত হচ্ছে ট্রাফিক আপডেট # কার্যক্রম শুরু কাল # প্রতি আধঘণ্টায় সড়কের ট্রাফিক আপডেট জানাবে ‘রেডিও ফূর্তি’

চট্টগ্রামের ব্যস্ত নগরীর ব্যস্ত সড়কের প্রতি মুহূর্তের সার্বিক পরিস্থিতি নগরবাসীর কাছে পৌঁছে দিতে এবার বেতার বার্তার সাহায্য নিচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ। এর আগেও বেতার মাধ্যম ‘রেডিও টুডে’র মাধ্যমে জানানো হত ট্রাফিক আপডেট। কিন্তু পৃষ্ঠপোষকতাসহ নানান জটিলতায় বন্ধ হয়ে যায় এ কার্যক্রম। সবশেষ দীর্ঘ ৫ বছর পর আবারও শুরু হতে যাচ্ছে এ কার্যক্রম। তবে এবার নগর ট্রাফিক বিভাগের সাথে যৌথ উদ্যোগে ট্রাফিক আপডেট জানাবে ‘রেডিও ফূর্তি’। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে প্রতি ঘণ্টায় নগরীর সড়কগুলোর সার্বিক পরিস্থিতি জানাচ্ছে বেতার মাধ্যম ‘রেডিও ফূর্তি’। কাল ১৭ ডিসেম্বর এ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবে নগর ট্রাফিক বিভাগ। তবে ট্রাফিকের এ উদ্যোগগুলো কেবলই লোক দেখানো এবং এর কোন সুফলই নগরবাসী পাবেন না বলে মন্তব্য করেছেন পরিবহন বিশেষজ্ঞরা। ট্রাফিকের উত্তর বিভাগের পরিদর্শক (প্রশাসন) মহিউদ্দিন খান পূর্বকোণকে বলেন, ‘রেডিওর মাধ্যমে নগরবাসীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে নগরীর প্রতিটি সড়কের সার্বিক পরিস্থিতি। প্রতি ঘণ্টায় সড়কের এ ট্রাফিক আপডেট প্রচার করবে ‘রেডিও ফূর্তি’। রেডিও-তে ট্রাফিক আপডেটের তথ্য পৌঁছে দিতে কাজ করবে ট্রাফিকের কন্ট্রোল রুম।

কন্ট্রোল রুমে দায়িত্বরত ট্রাফিক সদস্যরা সংশ্লিষ্ট ট্রাফিক পরিদর্শকদের (টিআই) সাথে কথা বলে সড়কের সার্বিক পরিস্থিতি জেনে নিবেন। প্রাপ্ত তথ্য প্রতি আধঘণ্টা অন্তর অন্তর ‘রেডিও ফূর্তি’র বার্তা বিভাগে ফোন দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে। এসব তথ্যের মধ্যে থাকবে সড়কের কোন রুটে যানজটের আবস্থা কেমন’। এর মাধ্যমে সাধারণ পথচারী ও গাড়ির চালকরা উপকৃত হবেন বলে মন্তব্য করেছেন এই ট্রাফিক কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘এখন থেকে সাধারণ পথচারী কিংবা যাত্রীরা সড়কের পরিস্থিতি জেনে যাত্রা করতে পারবেন। তাছাড়া এ কার্যক্রমের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে কোন সড়ক, কোন দিন, কি কারণে বন্ধ থাকবে। এতে করে নগরীর প্রতিটি সড়কের প্রতিটি মুহূর্তের ট্রাফিক আপডেট জানতে পারবে সাধারণ মানুষ। ট্রাফিক আপডেট অনুযায়ী পথ বদলানোর পশাপাশি নির্বিঘ্নে নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করতে পারবে সাধারাণ মানুষ। কাল (মঙ্গলবার) আগ্রাবাদ হোটেলের ইছামতি হলে এ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে। যদিও কয়েক বছর আগেও এ কার্যক্রম ছিল। তবে সেই আপডেটটি নিজস্ব উদ্যোগেই জানাতো রেডিও স্টেশনটি’। পৃষ্ঠপোষকতাসহ নানান জটিলতায় তা বন্ধ হয়ে যায় বলেও জানান তিনি। রেডিও ফূর্তির চট্টগ্রাম স্টেশনের প্রধান মুনতাছির হোসেন পূর্বকোণকে বলেন, ‘ট্রাফিকের সাথে একবছরের চুক্তি হয়েছে রেডিও ফূর্তির সাথে। চুক্তিটা হচ্ছে, প্রতি আধঘণ্টায় আমাদের আর জে (রেডিও জকি)-রা একবার করে ট্রাফিক আপডেট জানাবে। সকাল ৮ থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত অর্থাৎ ৯ ঘণ্টা ট্রাফিক আপডেট জানাবো আমরা। এর আগে ঢাকা থেকেই চট্টগ্রামের ট্রাফিক

আপডেট জানানো হতো। ঢাকায় সে তথ্য সরবারহ করতো রেডিও ফূর্তির মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা। তবে এবারই প্রথম চট্টগ্রামের ট্রাফিকের সাথে যৌথ উদ্যোগে ট্রাফিক আপডেট জানাতে যাচ্ছে রেডিও ফূর্তি’। এরআগে সর্বশেষ ২০১৫ সালে রেডিও টুডে ‘চট্টগ্রাম চাকা’ নামে ট্রাফিক আপডেটের যে সম্প্রচারটি ছিল তা বন্ধ করে দেয়। স্পন্সরদের অভাবেই ‘চট্টগ্রাম চাকা’ বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানান রেডিও টুডে’র চট্টগ্রাম অফিসের কর্মকর্তা সালেহ্ নোমান।

এদিকে ট্রাফিকের এ উদ্যোগগুলোকে কেবলই লোক দেখানো এবং এর কোন সুফল নগরবাসী পাবেন না বলে মন্তব্য করেছেন পরিবহন বিশেষজ্ঞ সুভাষ বড়ুয়া। তিনি পূর্বকোণকে বলেন, ‘গত কয়েক মাসে ট্রাফিক বিভাগ বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যা অতীতেও এই নগরীতে বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হয়েছিল। পরিকল্পনা ও ডিজাইন রেডি না করে উদ্যোগ বাস্তবায়নের চেষ্টা করলে তা তো ব্যর্থ হবেই। এখন যা করা হচ্ছে তা কেবলই লোক দেখানো এবং টাকা খরচ করার কৌশল মাত্র। ইতিমধ্যে যেসব উদ্যোগ ট্রাফিক বিভাগ গ্রহণ করেছে তার বেশিরভাগই আলোর মুখ দেখেনি। ট্রাফিক আপডেটের এই উদ্যোগও এমনই হবে। ধরেন, আমি লালখান বাজার থেকে দেওয়ানহাট বা টাইগারপাস যাচ্ছি, কিন্তু ট্রাফিক আপডেট বলছে রাস্তাটিতে প্রচণ্ড যানজট। এখন আমি কি করবো। ট্রাফিক আপডেটে কিন্তু আমাকে বিকল্প রাস্তার কথা বলে দেইনি। এই নগরীতে কয়টা সড়কের বিকল্প পথ আছে। যদি নাই থাকে, এই আপডেটের প্রয়োজন কি?। আমি মনে করি এটা একটি ‘পিস মিল ওয়ার্ক’। এর বাইরে আর কিছুই না’।

নগর ট্রাফিক পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মোস্তাক আহমেদ পূর্বকোণকে বলেন, ‘রেডিও ফূর্তি স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই কাজ করতে যাচ্ছে। তারা প্রতি ঘণ্টায় ট্রাফিক আপডেটের পাশাপাশি ট্রাফিক সচেতনতা ও ট্রাফিকের ভবিষৎ পরিকল্পনা নিয়ে সাধারণ মানুষকে জানাবে। এছাড়া নগরীর কোন সড়ক, কোন দিন, কি কারণে বন্ধ থাকবে তাও এই ট্রাফিক আপডেটের মাধ্যমে আমরা জানানোর চেষ্টা করবো’। এই উদ্যোগটি যানজট নিরসনের পাশাপাশি সড়কে জনভোগান্তিও কমাবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

The Post Viewed By: 163 People

সম্পর্কিত পোস্ট