চট্টগ্রাম রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০

সর্বশেষ:

সামগ্রিক অগ্রগতিতে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতির পথে এগুচ্ছে

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

বিজয়-৭১ এর উৎসবে ড. অনুপম সেন

সামগ্রিক অগ্রগতিতে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতির পথে এগুচ্ছে

বিজয়’৭১ এর ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বীর চট্টলা বিজয় উৎসব উদ্যাপন পরিষদের উদ্যোগে গত শুক্রবার ডি.সি হিল (নজরুল স্কয়ারে) মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ, সম্মাননা প্রদান, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠসৈনিকদের সম্মাননা প্রদান এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়। সংগঠনের সভাপতি সজল চৌধুরীর সভাপতিত্বে মুক্তিযোদ্ধা এবং ৭১ জন ছিন্নমূল শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, বিজয়’৭১ এর তরুণরা তাদের সৃষ্টিশীল কর্মকা-ের মাধ্যমে চট্টগ্রামকে অহংকারে পরিণত করেছে। আমি বিশ্বাস করি, জয় বাংলা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও বিশ্বাসকে প্রতিষ্ঠিত করে এই সংগঠনটি অনেকদূর এগিয়ে যাবে। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিজয় উৎসবে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিজয় উৎসবের আহ্বায়ক মো. সাহাবউদ্দিন। উদ্বোধন করেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, আমাদের সামগ্রিক, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিশেষ করে নারী-শিশু, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও মানব উন্নয়নের অগ্রগতির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ তার জনগণের প্রতি দ্বিতীয় প্রতিশ্রুতি পূরণের পথে এগুচ্ছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাসহ সকলের অংশগ্রহণে একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গঠনের আহ্বান জানান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদুল হক চৌধুরী, সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, রফিকুল আলম, মো. ইউসুফ, জাফর আহমদ, কামরুল আলম, শহীদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, সৈয়দ আহমদ, শহীদুল হক, অঞ্জন কুমার সেন, রাখাল চন্দ্র ঘোষ, শিক্ষাবিদ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ, জেলা পরিষদের সদস্য শাহিদা আক্তার জাহান, আলী আহমেদ শাহীন প্রমুখ।

প্রধান আলোচক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার ৪৯তম বছর অতিক্রান্ত করছি আমরা। এই মুহূর্তে স্বাধীনতার এ অর্জনকে গৌরব উজ্জ্বল করার জন্যে তরুণের সমন্বয় করে আগামীর স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুর শততম বার্ষিকী এবং সেই সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকা-কে আরো বেগবান করতে হবে। সভায় সম্মাননাপ্রাপ্ত শহীদজায়া বেগম মুশতারী শফী অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, আজকের তরুণ প্রজন্ম বিজয়’৭১ এর কর্মীরা আমাকের যে সম্মাননা দিয়েছে আমি খুবই আনন্দিত। ড. মাহবুবুল হক বলেন, বাংলাদেশ এবং বাংলাভাষা আজ বিশ্বের বুকে অহংকারের জায়গা করে নিয়েছে। তিনি এ প্রজন্মকে শিক্ষা, সংস্কৃতি কর্মকা-ে সম্পৃক্ত হয়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান। মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন মো. সরওয়ার আলম মনি, শাহেদ মুরাদ শাকু, কাজী মো. রাজিশ ইমরান, ড. মো. ওমর ফারুক রাসেল, মো. আশরাফুল হক চৌধুরী, বিবি গুল জান্নাত, রিপন চৌধুরী, মো. মঈনুল আলম সৌরভ, মো. ওমর ফারুক চৌধুরী জীবন, শেখ খোরশেদুজ্জামান।

The Post Viewed By: 87 People

সম্পর্কিত পোস্ট